সোনালী সংবাদ’র ২৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত

নিউজ ডেস্ক

নিজস্ব প্রতিবেদক:

পথচলার ২৬ বছর পার করলো উত্তরাঞ্চলের বহুল প্রচারিত দৈনিক সোনালী সংবাদ পত্রিকা। রোববার রাজশাহী থেকে প্রকাশিত এ পত্রিকাটি ২৭ বছরে পা দিয়েছে। আর এ দিনই আনুষ্ঠানিকভাবে পত্রিকাটির নতুন অফিসের উদ্বোধন করা হয়েছে। নতুন অফিস নগরীর বোয়ালিয়া থানার মোড়ে।

সকালে ফিতা কেটে নতুন অফিসের উদ্বোধন করেন রাজশাহী-২ (সদর) আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী সরকার। এরপর পত্রিকাটির ২৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে কেক কাটা হয়। অনুষ্ঠিত হয় সুধি সমাবেশও। সেখানে বক্তারা প্রত্যাশা করেন গণমানুষের মুখপাত্র হয়েই সোনালী সংবাদ টিকে থাকুক বছরের পর বছর, যুগের পর যুগ।

সুধি সমাবেশে সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা বলেন, দেশের বিভিন্ন স্থান ঘুরে দেখেছি, সোনালী সংবাদকে সবাই চেনে। যারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনায়অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশের স্বপ্ন দেখে তারাই সোনালী সংবাদের মালিক। এই চেতনা থেকে এক বিন্দু বিচ্যুতি হলে পাঠকরাই যেন পত্রিকার অফিসে এসে অভিযোগ করে যায়। সোনালী সংবাদের লক্ষ্য সব সময় মানুষের কল্যাণে কাজ করা। দুর্বৃত্তরা এখন সৎ সাংবাদিকতাকে টেনে ধরছে। কিন্তু সেটি অতিক্রম করেই সোনালী সংবাদ এগিয়ে যাবে।

জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী সরকার বলেন, দেখতে দেখতে সোনালী সংবাদের ২৬ বছর পার হয়ে গেল। পত্রিকাটিকে কীভাবে আরও বেশি গ্রহণযোগ্য করা যায় সে বিষয়ে ভাবতে হবে। লক্ষ্য ঠিক করে সামনের দিকে এগিয়ে যেতে হবে। সোনালী সংবাদ যেন গণমানুষের মুখপাত্র হিসেবেই কাজ করে।

পত্রিকার সম্পাদক মো. লিয়াকত আলী সমাবেশ পরিচালনা করেন। তিনি প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে সবাইকে আন্তরিক শুভেচ্ছা জানান। বলেন, সোনালী সংবাদ থেকে অনেক সাংবাদিক এখন সম্পাদক হয়েছেন। অনেকে ঢাকায় গিয়ে জাতীয়পর্যায়ে সাংবাদিকতা করছেন। সুনাম করেছেন। তিনি বলেন, ছোট্ট একটা ঘরে ২৬ বছর আগে সোনালী সংবাদের যাত্রা শুরু হয়েছিল। বেশ কয়েক জায়গায় অস্থায়ীভাবে অফিস হয়েছে। সর্বশেষ বোয়ালিয়া থানার মোড়ে অফিস হলো। সোনালী সংবাদকে কীভাবে আরও বেশি গ্রহণযোগ্য করা যায় সেই প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে। এ সময় পত্রিকার প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান প্রয়াত আইনজীবী এমএ সামাদ, প্রয়াত প্রধান সম্পাদক ওয়াজেদ মাহমুদ, প্রয়াত বার্তা সম্পাদক আনোয়ারুল আলম ফটিক, প্রয়াত প্রধান প্রতিবেদক মাহাতাব চৌধুরী সহ প্রয়াত অন্যান্য কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অবদান শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেন সম্পাদক মো. লিয়াকত আলী।

সুধি সমাবেশে সামাজিক সংগঠন রাজশাহী রক্ষা সংগ্রাম পরিষদের সাধারণ সম্পাদক জামাত খান বলেন, আমরা রাজশাহীর উন্নয়নে বিভিন্ন দাবি-দাওয়া তুলে ধরেছি। আর সোনালী সংবাদ আমাদের কথা তুলে ধরেছে। উত্তরাঞ্চলের উন্নয়নে সোনালী সংবাদের যে অবদান তা কখনও অস্বীকার করা যাবে না।

রাজশাহীর দৈনিক সোনার দেশ পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক আকবারুল হাসান মিল্লাত বলেন, সোনালী সংবাদ প্রগতিশীল ধারার ব্যতিক্রমী একটি দৈনিক। প্রতিষ্ঠার পর থেকেই এটি প্রগতিশীল মানুষের মুখপাত্র হিসেবে কাজ করেছে। নারীর ক্ষমতায়নের পক্ষে এবং জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে সোনালী সংবাদ সব সময় অগ্রগামী।

আমাদের রাজশাহী পত্রিকার সম্পাদক আফজাল হোসেন বলেন, রাজশাহীতে আধুনিক সাংবাদিকতার সূত্রপাত ঘটিয়েছে সোনালী সংবাদ। এ জন্যই পত্রিকাটি সবার চেয়ে এগিয়ে। আগামীতেও এই ধারা অব্যাহত থাকুক।

রাজশাহী সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি কাজী শাহেদ বলেন, সোনালী সংবাদের উপজেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করার সৌভাগ্য আমার হয়েছে। এখানে অনেক কিছু শেখার সুযোগ হয়েছে। সোনালী সংবাদ সাংবাদিক গড়ে তোলার কারিগর। ২৭ নয়, ৭০০ বছর টিকে থাকুক প্রিয় এই দৈনিকটি।

বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সহসভাপতি মামুন-অর-রশিদ বলেন, যখন গ্রামে থাকতাম, তখন থেকেই পত্রিকাটির প্রতি আমি আকৃষ্ট। গত ২৬ বছরে সোনালী সংবাদ যে ভূমিকা রেখেছে তা দেশ ও জাতির জন্য কল্যাণকর। ২৭ নয়, যুগ যুগ ধরে টিকে থাকুক সোনালী সংবাদ এই প্রত্যাশা করি।

সোনালী সংবাদে নিজের কাজের অভিজ্ঞতা তুলে ধরে যমুনা টেলিভিশনের রাজশাহী ব্যুরো প্রধান শিবলী নোমান বলেন, আমি প্রথম সম্পাদক পেয়েছি সোনালী সংবাদে। আমরা যারা এখন কাজ করছি তারা সোনালী সংবাদেরই ফসল। আগামীতে এই ফসলের সংখ্যা আরও বৃৃদ্ধি পাবে, অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ার সংগ্রামে সোনালী সংবাদ আগামীতেও যুক্ত থাকবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকার রাজশাহী অফিসের স্টাফ রিপোর্টার মো. আনিসুজ্জামান বলেন, ২৬ বছর ধরে দৈনিক সোনালী সংবাদ ধর্মান্ধতা ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে সংগ্রাম চালিয়ে আসছে।

সাংষ্কৃতিক ব্যক্তিত্ব কামার উল্লাহ সরকার বলেন, সোনালী সংবাদ মুক্তিযুদ্ধের চেতনা অর্থাৎ আমাদের ছিলো, আমাদেরই থাকবে।

সুধি সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন দৈনিক সানশাইনের সম্পাদক তসিকুল ইসলাম বকুল, দৈনিক রাজশাহী সংবাদের সম্পাদক আহসান হাবিব অপু, চ্যানেল আইয়ের স্টাফ রিপোর্টার আবু সালে মো. ফাত্তাহ, বাংলাভিশনের স্টাফ রিপোর্টার পরিতোষ চৌধুরী আদিত্য, রাজশাহী ফটোজার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আসাদুজ্জামান আসাদ, দৈনিক বার্তার স্টাফ রিপোর্টার ফজলুল করিম বাবলু প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়াও অনুষ্ঠানে সোনালী সংবাদের নির্বাহী সম্পাদক মাহমুদ জামাল কাদেরী, ভারপ্রাপ্ত বার্তা সম্পাদক আবদুল করিম, প্রধান প্রতিবেদক তবিবুর রহমান মাসুম, বিশেষ প্রতিনিধি মোমিনুল ইসলাম বাবু, ভারপ্রাপ্ত মফস্বল বার্তা সম্পাদক কাজী নাজমুল ইসলাম, ফটোচিফ জাবীদ অপু, ফটোসাংবাদিক কবীর তুহিন, স্টাফ রিপোর্টার তৈয়বুর রহমান, স্টাফ রিপোর্টার রিমন রহমান, স্টাফ রিপোর্টার শিরিন সুলতানা কেয়া, প্রধান হিসাবরক্ষক মাজিরুল ইসলাম, সিনিয়র নির্বাহী একরামুল হক মাসুদ, বিজ্ঞাপন ম্যানেজার রেজাউল করিম রেজা, হিসাবরক্ষক ইকবাল হোসেন, সম্পাদনা সহকারী ইনচার্জ জহিরুল ইসলাম, সম্পাদনা সহকারী মিজানুর রহমান টুকু, বিজ্ঞাপন সহকারী আবদুর রহমান, মোস্তাক হোসেন, আবু বাক্কার, প্রেস ইনচার্জ খায়ের মুন্সি, সহকারী মেশিনম্যান হাবিবুর রহমান হাবিবসহ পত্রিকাটির রিপোর্টিং, কম্পিউটার, বিজ্ঞাপন, পেস্টিংসহ সকল বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

স/অ

শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, [email protected] ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।