সাংবাদিক নির্যাতনকারী হেফাজত কর্মীদের দ্রুত বিচার দাবি আরইউজে’র

  • 11
    Shares

নিজস্ব প্রতিবেদক:

সাংবাদিকি নির্যাতন ও লাঞ্ছনাকারী হেফাজতে ইসলামের উগ্র কর্মীদের দ্রুত গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছে রাজশাহী সাংবাদিক ইউনিয়ন-আরইউজে। শনিবার (০৩ এপ্রিল) বেলা ১১টায় রাজশাহী মহানগরীর সাহেববাজার জিরোপয়েন্টে হেফাজতে ইসলামের উগ্র কর্মীদের দ্বারা সাংবাদিক নির্যাতন ও লাঞ্ছনার প্রতিবাদে অনুষ্ঠিত মানববন্ধন কর্মসূচি থেকে আরইউজে নেতৃবৃন্দ এই দাবি জানায়।  এসময় হরতালের নামে দেশব্যাপী তাণ্ডব চালানো হেফাজতে ইসলামকে নিষিদ্ধের দাবিও জানায় রাজশাহীর সাংবাদিক নেতারা।

মানববন্ধনোত্তর সমাবেশে বক্তারা বলেন,  হেফাজতে ইসলাম ধ্বংসলীলায় মেতে উঠেছে। ইসলাম শান্তির ধর্ম। ইসলামের নামে ধ্বংসলীলা চলতে দেয়া যায় না। তারা বলেন, একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধ হয়েছিল অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশের স্বপ্ন দেখে। সংবিধানেও চার মূলনীতি আছে। এর একটি অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ। কিন্তু হেফাজতে ইসলাম সাম্প্রদায়িকতার বিষবাষ্প ছড়াচ্ছে।

বক্তারা আরও বলেন, হেফজতের উগ্র কর্মীরা সরাদেশে সরকারি স্থাপনায় ধ্বংসযজ্ঞ চালিয়েছে। গণমাধ্যমকর্মীদের নির্যাতন করেছে। লাঞ্ছিত করেছে। গণমাধ্যমের গাড়িতে অগ্নিসংযোগ করেছে। দেশের সাবাধীনতা এবং সার্বভৌমত্বকে চ্যালেঞ্জ করেছে। তাই অবিলম্বে ধর্মভিত্তিক এই সংগঠনটিকে নিষিদ্ধ করতে হবে। আর ধ্বংসযজ্ঞের যারা জড়িত, তাদের বিচােেরর আওতায় আনতে হবে।

আরইউজে সভাপতি রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক তানজিমুল হকের সঞ্চালনায় মানবন্ধনোত্তর সমাবেশে বক্তব্য দেন- রাজশাহী সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি মুস্তাফিজুর রহমান খান আলম, বর্তমান সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা তৈয়বুর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান টুকু, কোষাধ্যক্ষ সরকার দুলাল মাহবুব, রাজশাহী টেলিভিশন জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি মেহেদী হাসান শ্যামল, বিএফইউজে সদস্য জাবীদ অপু, আরইউজের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মামুন-অর-রশিদ, বাংলাদেশ ফটোজার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন রাজশাহী শাখার সভাপতি আসাদুজ্জামান আসাদ এবং রাজশাহী মেট্রোপলিটন প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আজিজুল ইসলাম প্রমুখ। এসময় রাজশাহী সাংবাদিক ইউনিয়নের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য শরিফুল ইসলাম তোতাসহ আইরউজের সদস্য এবং বিভিন্ন গণমাধ্যমে কর্মরত সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

এএইচ/এস

শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, silkcitynews@gmail.com ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।