সমর্থন আদায়ে মঙ্গোলিয়া সফরে রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী

সিল্কসিটিনিউজ ডেস্কঃ

ইউক্রেন ন্যাটোর সদস্য হলে রাশিয়ার নিরাপত্তা হুমকিতে পড়তে পারে-এ কথা বারবার জানানোর পরও ইউক্রেন ন্যাটোর সদস্য হওয়ার নানা প্রক্রিয়া শুরু করেছিল। আর নিজেদের নিরাপদ রাখতে গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে সামরিক অভিযান শুরু করে রাশিয়া।

ইউক্রেন যুদ্ধের জন্য ভ্লাদিমির পুতিনের রাশিয়ার ওপর নানা নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে পশ্চিমারা। তবে পশ্চিমা নিষেধাজ্ঞার চাপ এবং কূটনৈতিকভাবে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়া ঠেকাতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে রাশিয়া।

এর অংশ হিসেবে এশিয়া সফরে প্রতিবেশী দেশ মঙ্গোলিয়া গেছেন রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ।

মঙ্গলবার মঙ্গোলিয়ার প্রেসিডেন্ট উখনাগিন খুরেলসুখ এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রী বাটসেটসেগ বাটমুনখের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন সের্গেই ল্যাভরভ।

পূর্ব এশিয়ার স্থলবেষ্টিত রাষ্ট্র মঙ্গোলিয়ার উত্তরে রাশিয়া এবং দক্ষিণ, পূর্ব ও পশ্চিমে চীন। যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক গড়ে তোলার পাশাপাশি উভয় প্রতিবেশীর সঙ্গেও বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রাখার চেষ্টা করছে দেশটি। তবে মস্কো ও বেইজিংয়ের সঙ্গে তাদের সম্পর্ক ক্রমেই ভঙ্গুর হয়ে উঠছে বলে মনে করা হয়।

ল্যাভরভের সফর ঘিরে শক্তিশালী দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের ওপর জোর দিয়ে ইউক্রেন ইস্যুতে দুই দেশের ঐক্যবদ্ধ কোনও অবস্থানের ঘোষণা আসেনি। তবে দুই পক্ষ একাধিক বাণিজ্য চুক্তি স্বাক্ষর করেছে। এছাড়া মঙ্গোলীয় ভূখণ্ডের মধ্য দিয়ে চীনে রাশিয়ার প্রাকৃতিক গ্যাস সরবরাহের জন্য একটি পাইপলাইন তৈরি করা হচ্ছে।

 

 

সুত্রঃ বাংলাদেশ প্রতিদিন