সত্যিই কি ফ্রান্স ফুটবলকে বিদায় বলে দিয়েছেন পগবা?

হযরত মুহাম্মদ (সঃ)কে নিয়ে ফ্রান্স প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁর আপত্তিকর মন্তব্য এবং প্যারিসসহ ফ্রান্সের বিভিন্ন শহরে মুহাম্মদ (সঃ) এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে ফ্রান্স জাতীয় ফুটবল থেকে পল পগবা পদত্যাগ করেছেন বলে খবর ছড়িয়ে পড়েছে। মধ্যপ্রাচ্যের বেশ কিছু সংবাদ মাধ্যম এই খবর প্রকাশ করলেও এ নিয়ে পগবা কিংবা ফ্রান্স ফুটবল ফেডারেশনের পক্ষ থেকে কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

মূলতঃ ফুটবল বিশ্বে এখন একটাই আলোচিত বিষয়, পল পগবা কি সত্যিই ফ্রান্স ফুটবল থেকে অবসর নিয়েছেন? অধিকাংশ মিডিয়াই বলছে, পগবা হযরত মুহাম্মদ (সঃ) কে নিয়ে চরম আপত্তিকর মন্তব্য করা এবং ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদ করে ফ্রান্স জাতীয় ফুটবল দলকে ‘না’ বলে দিয়েছেন পগবা। আবার কেউ কেউ বলছেন, খবরটি ভুয়া। পল পগবা এমন কোনো চিন্তাই করেননি।

পড়বার অবসর নেয়া না নেয়া নিয়ে পরস্পর বিরোধী খবর প্রচার করছে ব্রিটিশ মিডিয়াগুলোও। কিন্তু কেউই পগবা কিংবা ফ্রান্স ফুটবল ফেডারেশনের কোনো মন্তব্য প্রকাশ করতে পারেনি। ব্রিটেনের মূল ধারার দুটি মিডিয়া- দি সান এবং ডেইলি মেইল প্রকাশ করেছে পরস্পর বিরোধী সংবাদ।

Pogba-2.jpg

দি সান সবার আগে মধ্যপ্রাচ্যের মিডিয়াগুলোর বরাত দিয়ে খবর প্রকাশ করেছে যে, পল পগবা ফ্রান্স ফুটবল থেকে অবসরের ঘোষণা করেছেন এবং সেটা শুধুমাত্র ফ্রান্স প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁর চরম আপত্তিকর মন্তব্যের প্রতিবাদে। যদিও দি সান রিপোর্টে জানিয়ে দিয়েছে, এ নিয়ে পগবা কিংবা ফ্রান্স ফুটবল ফেডারেশনের কাছ থেকে কোনো মন্তব্য জানা যায়নি।

অন্যদিকে দি ডেইলি মেইল জানিয়েছে, তারা খোঁজ নিয়ে জানতে পেরেছে, পল পগবা এ ধরনের (অবসরের) কোনো চিন্তাই করেনি। যদিও ডেইলি মেইলও তাদের নিউজের ক্ষেত্রে ‘ধারণা’ শব্দটাকেই প্রাধান্য দিয়েছে। পল পগবা, ফ্রান্স ফুটবল ফেডারেশন কিংবা নিশ্চিত কোনো সূত্র থেকে কোনো কিছু জানাতে পারেনি।

তবে, ফেসবুক-টুইটারসহ নানা সোশ্যাল মিডিয়ায় পল পগবা হ্যাশট্যাগ দিয়ে ভাইরাল হয়ে পড়েছে তার ফ্রান্স জাতীয় ফুটবল দল থেকে অবসর গ্রহণের বিষয়টি। মুসলিমরা তো পগবাকে অভিনন্দনের বন্যায় ভাসিয়ে দিচ্ছেন। তবে সোশ্যাল মিডিয়ায় কিছু ব্যবহারকারী বলছে, পগবা ফ্রান্স ফুটবলকে ‘না’ করেনি। এ সম্পর্কে যে সংবাদ ছড়িয়েছে, সে গুলো ভুয়া।

Pogba-2.jpg

মূলতঃ ফ্রান্সের স্যামুয়েল প্যাটি নামক এক চরমপন্থী শিক্ষক, যিনি স্কুলের শিশুদের হযরত মুহাম্মদ (সঃ) কে নিয়ে ব্যঙ্গচিত্রমূলক কার্টুন প্রদর্শন করেন, ওই ঘটনার পর বাড়ি ফেরার পথে কে বা কারা ঘাড় থেকে তার মাথা বিচ্ছিন্ন করে হত্যা করে। ওই ঘটনার পরই ফ্রান্স প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁ একে ‘ইসলামিক টেরোরিস্ট অ্যাটাক’ বলে অভিহিত করেছেন।

এরপরই ম্যাক্রোঁ এবং ফ্রান্সের রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় প্যারিসসহ দেশটির বিভিন্ন শহরে হযরত মুহাম্মদ (সঃ) এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শন শুরু করে। মুসলিম বিশ্ব এবং মুসলমানদের পক্ষ থেকে তুমুল প্রতিবাদ জানানো সত্ত্বেও ফ্রান্স সরকার এবং প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁ আক্রমণাত্মক ভাষায় হযরত মুহাম্মদ (সঃ) সম্পর্কে আপত্তিকর মন্তব্য করা থেকে বিরত হচ্ছে না এবং একই সঙ্গে ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শণও বন্ধ করছে না।

যার ফলশ্রুতিতে মুসলিম দেশগুলোতে ব্যাপকহারে ফ্রান্সের পণ্য বর্জনের হিড়িক পড়ে যায়। এরই পরিপ্রেক্ষিতে একদিন আগে ফ্রান্স সরকারের পক্ষ থেকে মুসলিম দেশগুলোর প্রতি আহ্বান জানানো হয়, যেন পণ্য বর্জন না করে। এরই মধ্যে খবর প্রকাশ হলো, পল পগবাও একই ঘটনার প্রতিবাদে ফ্রান্স জাতীয় ফুটবল থেকে অবসরের কথা জানিয়ে দিয়েছেন। তবে, তিনি কি সত্যি সত্যি ফ্রান্স ফুটবল থেকে অবসর নিয়েছেন নাকি নেননি, সেটা এখনও পরিষ্কার নয়।

প্রসঙ্গতঃ ২০১৩ সালে ফ্রান্স জাতীয় ফুটবল দলের হয়ে অভিষেক হয় পল পগবার। এরপর থেকে ফ্রান্সের জার্সি গায়ে ৭০টি ম্যাচ খেলেছেন তিনি। গোল করেছেন ১০টি। ফ্রান্সকে ২০১৮ রাশিয়ায় অনুষ্ঠিত ফিফা বিশ্বকাপ জয়ে অন্যতম অবদান রাখেন পগবা। বর্তমানে তিনি খেলছেন ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের হয়ে।

বিশ্বকাপ জয়ের কিছুদিন আগে কিংবা পরে পগবা সপরিবারে ইসলাম গ্রহণ করেন এবং বিশ্বকাপ জয়ের পর তিনি নিজেই ইসলাম গ্রহণের কথা প্রকাশ্যে সবাইকে জানিয়ে দেন এবং একবার হজব্রতও পালন করেন।

শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, [email protected] ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।