সঞ্জয় দত্তের ‘ক্যান্সার’: গুজবে কান না দেয়ার আহ্বান পরিবারের

নিউজ ডেস্ক

বলিউডের খ্যাতনামা তারকা সঞ্জয় দত্তের অসুস্থতার খবর প্রচারের পর তার স্ত্রী মান্যতা দত্ত এনিয়ে গুজবে কান না দেয়ার জন্য সবার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

মুন্নাভাই এমবিবিএস-খ্যাত মি. দত্ত ফুসফুসের ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়েছেন বলে সংবাদমাধ্যমে খবর হলেও তিনি নিজে বা তার পরিবার এনিয়ে কোন কথা বলেননি।

একষট্টি-বছর বয়সী এই অভিনেতা সম্প্রতি শ্বাসকষ্ট নিয়ে মুম্বাইয়ের লীলাবতী হাসপাতালে ভর্তি হন।

তারপর থেকেই তার শারীরিক অবস্থা নিয়ে ভক্তদের মধ্যে জোর আলোচনা শুরু হয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেকেই তার প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন এবং তার আশু রোগমুক্তি কামনা করেছেন।

এক বিবৃতিতে মান্যতা দত্ত তার স্বামীর জন্য প্রার্থনা করতে ভক্তদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

তিনি বলেছেন, “সাঞ্জুর (সঞ্জয় দত্তের ডাক নাম) ফ্যানদের প্রতি আবেদন জানাবো তারা যেন কোন ধরনের গুজব বা কানাঘুষায় যোগ না দেন। আমি শুধু চাই আপনারা আমাদের জন্য প্রীতি আর হৃদয়ের উষ্ণতা জানাবেন এবং আমাদের প্রতি সমর্থন দেবেন।”

“আমাদের এই পরিবারটি অতীতে বহু সমস্যার মোকাবেলা করেছে। আমি নিশ্চিত যে এবারও আমরা সেটা পারবো।”

ফুসফুসের ক্যান্সার সম্পর্কে কোন কথা না বললেও মি. দত্ত মঙ্গলবার সোশ্যাল মিডিয়ায় জানিয়েছেন যে “স্বাস্থ্যগত কারণে তিনি কাজ থেকে বিরতি নিচ্ছেন।”

চিত্র

ভারতের টাইমস নাও ওয়েবসাইট খবর দিয়েছে যে সঞ্জয় দত্তের ক্যান্সার এখন স্টেজ-থ্রি পর্যায়ে রয়েছে।

এর অর্থ হলো ক্যান্সারের টিউমারটি ফুসফুসের আশেপাশে ছড়িয়ে পড়লেও সেটা অন্যান্য অঙ্গপ্রত্যঙ্গকে আক্রান্ত করতে পারেনি।

বিশিষ্ট চলচ্চিত্র সাংবাদিক এবং ফিল্ম ইনসাইডার-এর প্রধান সম্পাদক কোমল নাহতা এক টুইটার পোস্টে মি. দত্তের ক্যান্সার হওয়ার খবর দিয়েছেন।

তিনি বলেছেন, “সঞ্জয় দত্তের ফুসফুসের ক্যান্সার ধরা পড়েছে। আসুন সবাই তার জন্য প্রার্থনা করি।”

চিকিৎসার জন্য তিনি শিগগীরই যুক্তরাষ্ট্রে যাবেন বলে এই ফিল্ম ইনসাইডার-এর সাইটে বলা হয়েছে।

বিবিসি বাংলা

শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, [email protected] ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।