শিশু আয়েশার বাঁচার আকুতি

নিজস্ব প্রতিবেদক: মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ, টিবি রোগে আক্রান্ত শিশু আয়েশা। বয়স মাত্র ৭ বছর ২ মাস। কঙ্কলসার শরীর নিয়ে পড়ে আছে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের বেডে। কোঠরের মাঝে ঢুকে যাওয়া নাটা ফলের মতো চোখ দুটোতে বাঁচার আকুতি।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, আয়েশা সেরে উঠবে ধিরে ধিরে। কিন্তু বিপত্তি অর্থে। খেটে খাওয়া পরিবারে কাছে সেই অর্থ নেই। আয়শার গ্রামের বাড়ি নওগাঁ জেলার মহাদেবপুর দেবিপুর গ্রামে। আয়েশার সৎ দাদা দেলোয়ার জানান, আয়েশার পিতা আব্দুর রহিম ও মা কারিমা। তারা দুই জনে আলাদা হয়ে যায়। তখন আয়েশার বয়স যখন মাত্র তিন মাস। সেই থেকেই আয়েশা তার কাছে থাকে। তিনি দিনমজুর মানুষ। আয়েশা অসুস্থ হওয়া দুই মাস হয়েছে। দুই মাস থেকেই আয়েশা রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের ৭নং ওয়ার্ডের ২৩ নম্বর বেডে পড়ে আছে।

দেলোয়ার আরো জানান, বাড়িতে আয়েশা প্রায় দুই মাস ধরে অসুস্থ। গ্রামের বাড়িতে বেশ কয়েকজন চিকিৎসক দেখানো হয়। কিন্তু আয়েশা ভালো হয়নি। একদিন দুপুর খাওয়ার পরে হঠাৎ দেখা যায় যে আয়েশার শরীর বাঁকা হয়ে যাচ্ছে। এরপরে তাকে মহাদেবপুর সরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে থেকে নিয়ে আসা হয় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে। সেই থেকে রামেক হাসপাতালেই চিকিৎসাধীন আছেন আয়েশা।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, আয়েশা সুস্থ হয়ে উঠবেন, তবে দেরি হবে। লম্বা সময় হাসপাতালে থেকে চিকিৎসার প্রয়োজন। দেলোয়ার হোসেন জানান, আয়েশার জন্য প্রতিদিনই দেড় থেকে দুই হাজার টাকা প্রয়োজন হচ্ছে। তিনি দিনমজুর মানুষ। এতো অর্থ জোগাড় করা তার পক্ষে সম্ভব হচ্ছে না। ইতোমধ্যেই আয়শার চিকিৎসা করতে গিয়ে সব শেষ করে ফেলেছেন। সমাজের বৃত্তবানদের কাছে আয়শা বাঁচার আকুতি জানিয়েছেন। আয়েশাকে ০১৭৫৩৯১৮৮০৫ নম্বরে বিকাশ করেও সহযোগিতা করতে পারবেন। কেউ সরজমিনে গিয়ে রামেক হাসপাতালের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের ২৩ নম্বর বেডে গিয়ে আয়েশাকে দেখে আসতে পারেন।

স/রি

শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, silkcitynews@gmail.com ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।