শিক্ষার্থীদের মাসে ৮ হাজার টাকা করে দেবে মমতা সরকার

সিল্কসিটি নিউজ ডেস্ক:

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের শিক্ষার্থীদের বড় সুখবর দিয়েছে মমতা সরকার। বৃহস্পতিবার মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় কৃতিদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এ ঘোষণা দেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, মমতা আরও শিক্ষার্থীকে রাজ্য সরকার সুযোগ দেবে বলে জানালেও অন্য নিয়মের পরিবর্তন হবে কি না তার উল্লেখ করেননি। যা নিয়ম রয়েছে তাতে যাদের পরিবারের বার্ষিক আয় আড়াই লাখ টাকা পর্যন্ত তারাই এর জন্য আবেদন করতে পারেন। বিভিন্ন বিষয় অনুযায়ী বৃত্তির অঙ্ক আলাদা। এতে শিক্ষার্থীরা মাসিক ১ হাজার থেকে ৮ হাজার টাকা করে পেতে পারেন। এমফিল বা পিএইচডি করার জন্যও পাওয়া যায় এই বৃত্তি।

আনন্দবাজার পত্রিকার খবরে বলা হয়, স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপের সুবিধা এখন থেকে আরও বেশি শিক্ষার্থী পাবেন। এই বৃত্তির মাধ্যমে প্রতি মাসে মেধাবী ছাত্রছাত্রীদের টাকা দেয় রাজ্য সরকার। মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক থেকে শুরু করে যে কোনও পরীক্ষায় ৭৫ শতাংশ নম্বর পেলেই এই বৃত্তির জন্য আবেদন করা যায়। এবার থেকে ৬০ শতাংশ নম্বর পেলেই পাওয়া যাবে এই বৃত্তি।

এ বছরের মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় কৃতিদের সংবর্ধনা দেওয়ার অনুষ্ঠানে মমতা বলেন, ‘‘এখন থেকে ৬০ শতাংশ নম্বর পেলেই স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ পাওয়া যাবে।’’

সুতরাং, এত দিনের তুলনায় অনেক বেশি ছাত্রছাত্রী এখন থেকে সেই বৃত্তির সুযোগ পাবেন।

২০১৬ সালে এই প্রকল্প শুরু করেন মমতা। সংরক্ষণের আওতায় না থাকা সাধারণ শ্রেণির (জেনারেল কাস্ট) শিক্ষার্থীরা এই বৃত্তি পান। যার পোশাকি নাম ‘স্বামী বিবেকানন্দ মেরিট কাম মিনস স্কলারশিপ’। দশম, দ্বাদশ এবং স্নাতক স্তরের যে কোনও শাখার শিক্ষার্থীরা এই সুযোগ পান। মেডিক্যাল, ইঞ্জিনিয়ারিং এবং বিভিন্ন প্রযুক্তি ও পেশাগত কোর্সের ছাত্রছাত্রীরাও এই বৃত্তির আওতায় পড়েন। এখনও যে নিয়ম রয়েছে তাতে সর্বশেষ পরীক্ষায় ৭৫ শতাংশ নম্বর পেতে হয়। এখন সেটাই ৬০ শতাংশ হয়ে গেল।

সূত্র:যুগান্তর