শচীন-দ্রাবিড়দের পাশে অশ্বিন

নিউজ ডেস্ক

সিল্কসিটিনিউজ ক্রীড়া ডেস্ক:

২০১৬ সালের আইসিসি বর্ষসেরা ক্রিকেটারের পুরস্কারটা যে রবীচন্দ্রন অশ্বিনের হাতেই উঠছে, তা অনেকটা নিশ্চিতই ছিল। বল হাতে অসাধারণ নৈপুণ্যের পাশাপাশি ব্যাট হাতেও জ্বলে উঠেছিলেন ভারতের এই ডানহাতি অলরাউন্ডার। ভারতের টেস্ট র‍্যাংকিংয়ের শীর্ষস্থান দখলের পেছনে নিঃসন্দেহেই বড় অবদান ছিল অশ্বিনের। ফলে বর্ষসেরা ক্রিকেটারের পাশাপাশি বর্ষসেরা টেস্ট ক্রিকেটারের পুরস্কারটাও উঠেছে তাঁর হাতে। রাহুল দ্রাবিড়, শচীন টেন্ডুলকারের পর ভারতের তৃতীয় খেলোয়াড় হিসেবে আইসিসির বর্ষসেরা ক্রিকেটার নির্বাচিত হয়েছেন অশ্বিন।

 

অসাধারণ অফস্পিন দিয়ে অশ্বিন যে প্রতিপক্ষের ব্যাটসম্যানদের ভালোই বিপাকে ফেলতে পারেন, তা আগে থেকেই জানা ছিল। এ বছর নিজের ব্যাটিং প্রতিভাটাও খুব দারুণভাবে দেখিয়েছেন ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান। ১৪ ইনিংসে ব্যাটিং করে খেলেছেন দুটি শতরানের ইনিংস। অর্ধশতক করেছেন চারটি ইনিংসে। বোলিং র‍্যাংকিংয়ের শীর্ষস্থানের পাশাপাশি টেস্ট অলরাউন্ডার র‍্যাংকিংয়ের শীর্ষস্থানটাও নিজের দখলে নিয়েছেন ভারতীয় এই অলরাউন্ডার।

 

২০১৫ সালের সেপ্টেম্বর থেকে ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বর পর্যন্ত পারফরম্যান্সের বিবেচনায় বেছে নেওয়া হয় বর্ষসেরা ক্রিকেটার। এই সময়ের মধ্যে মোট আটটি টেস্ট খেলে অশ্বিনের শিকার ৪৮টি উইকেট। আর ব্যাট হাতে করেছেন ৩৩৬ রান। আর ২০১৬ সালে মোট ১২টি টেস্ট খেলে দুটি শতকসহ অশ্বিন করেছেন ৬১২ রান। বল হাতে নিয়েছেন ১০২টি উইকেট।

 

রাহুল দ্রাবিড়, শচীন টেন্ডুলকারদের মতো কিংবদন্তির পর ভারতের তৃতীয় খেলোয়াড় হিসেবে বর্ষসেরার পুরস্কার জিততে পেরে অশ্বিন রীতিমতো অভিভূত। তিনি বলেছেন, ‘এমন স্বীকৃতি সত্যিই খুব আনন্দের। আমি মূলত একটি স্বীকৃতি পেতেই উদগ্রীব ছিলাম। কিন্তু একই সঙ্গে দুটি পুরস্কার পাওয়াটা অনেক বড় প্রাপ্তি। রাহুল দ্রাবিড় ও শচীন টেন্ডুলকারের মতো মহান খেলোয়াড়দের অনুসরণ করতে পেরেছি। এ অর্জনের জন্য অনেকের ধন্যবাদ প্রাপ্য। ধন্যবাদ দিতে চাই আমার পরিবারকে এবং আমার অর্জনের গুরুত্বপূর্ণ অংশীদার আমার সতীর্থদের ও কোচ অনিল কুম্বলেকে।’

 

২০১৬ সালে সেরা ওয়ানডে খেলোয়াড়ের পুরস্কার জিতেছেন দক্ষিণ আফ্রিকার ওপেনার কুইন্টন ডি কক। গত বছরের সেপ্টেম্বর থেকে এ বছরের সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ১৬টি ওয়ানডে খেলে ডি কক করেছেন ১১৭৫ রান। বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান দুর্দান্ত সময় কাটিয়েছেন ২০১৫ সালের অক্টোবর থেকে ২০১৬ সালের ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। এ সময়ের মধ্যে ছয়টি ইনিংসে ব্যাটিং করে তিনি করেছিলেন চারটি শতক। এবি ডি ভিলিয়ার্সের পর দক্ষিণ আফ্রিকার দ্বিতীয় খেলোয়াড় হিসেবে বর্ষসেরা ওয়ানডে ক্রিকেটারের পুরস্কার জিতেছেন ডি কক।

সূত্র: এনটিভি

শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, [email protected] ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।