সোমবার , ২৪ জুন ২০২৪ | ২রা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

লালপুরে আগুনে পুড়ল আশ্রয়ণ প্রকল্পের ৬টি ঘর

Paris
জুন ২৪, ২০২৪ ৮:৪৯ অপরাহ্ণ

লালপুর প্রতিনিধি :

নাটোরের লালপুরে আশ্রয়ণ প্রকল্পে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুন লেগে ৬টি ঘর পুরেগেছে বলে জানাযায়।

আজ সোমবার (২৪ জুন ২০২৪) দুপুর ১টার দিকে বিলমাড়িয়া ইউনিয়নের রসুলপুর পদ্মার চরে আশ্রয়ণ প্রকল্পে এ অগ্নি কান্ডের ঘটনা ঘটে। স্থানীয়সূত্রে জানা যায় আশ্রয়ণ প্রকল্পের জায়গায় শাহাবুলের মুরগি পালনের জন্য ঘর তোলার সময় বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুন লেগে যায় ঘরে। মুহুর্তের মধ্যে আগুন আশ্রয়ন প্রকল্পের অন্যান্য ঘরে ছড়িয়ে পড়ে।

এসময় আশ্রয়ণ প্রকল্পের লোকজন মুঠোফোনে লালপুর ফায়ার সার্ভিসকে জানালে ফায়ার সার্ভিসের ২টি ইউনিট আশ্রয়ণ প্রকল্পে পৌছে প্রায় ১ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। আশ্রয়ন প্রকল্পের ঠান্ডার আলী জানান আগুণে পুড়ে আমার সব শেষে হয়ে গেছে, আমার আর কিছু নেই। আমার টাকা, ধান, চাল, কাপড় চোপড় সহ মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। ঘরে গরু বিক্রয়ের সাড়ে তিন লক্ষ টাকার মধ্যে মেয়েকে চিকিৎসার জন্য ৬৫হাজার টাকা দিয়েছি, বাকি টাকা এই ঘরে ছিল। আমার সব শেষ হয়ে গেছে আমি নিঃস্ব হয়ে গেছি। ক্ষতিগ্রস্ত হাজেরা বেগম জানান আমি বিলমাড়িয়া ছিলাম খবর পেয়ে এসে দেখি আমার সব পুড়ে শেষ হয়ে গেছে আমি নিঃস্ব হয়ে গেছি। আমি থাকলে আমার এতো বড় ক্ষতি হতো না।

আমার আর কিছুই নাই আল্লাহ, এসময় পাশে দাঁড়িয়ে আশ্রয়ণ প্রকল্পের অন্যান্য অধিবাসীরা আগুণে ক্ষতিগ্রস্তদেরকে সান্ত্বনা দিচ্ছিলেন। রসুলপুর চরের আশ্রয়ণ প্রকল্পের অধিবাসীদের দাবি আগুনে পুড়ে আমার প্রায় ৫ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে। লালপুর ফায়ার সার্ভিসের সাব অফিসার আব্দুল সালাম জানান মুঠো ফোনে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌছে ১ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে নেওয় হয়েছে। তবে আগুনের সূত্রপাতের প্রকৃত কারণ ও ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ তাৎক্ষণিক বলা সম্ভব নয় তদন্ত স্বাপেক্ষে বলা যাবে।

বিলমাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সিদ্দিক আলী মিষ্টু ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে জানান আশ্রয়ণ প্রকল্পের অগ্নিকান্ডের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে জানতে পারি আগুনে পুড়ে ৬টি পরিবার ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বিষয়টি উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তাকে জানানো হয়েছে।

সর্বশেষ - রাজশাহীর খবর

...