রিজেন্ট সাহেদকে ‘নায়ক’ আখ্যা দিলেন সেলিমা

নিউজ ডেস্ক

করোনাভাইরাস পরীক্ষায় জালিয়াতির অভিযোগে উঠেছে রিজেন্ট হাসপাতালের কর্ণধর সাহেদ করিমের বিরুদ্ধে। সেই সাহেদকে ‘নায়ক’ হিসেবে আখ্যা দিয়েছেন বিএনপির সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরাম জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য বেগম সেলিমা রহমান।

সোমবার এক ভার্চুয়াল সভায় সাহেদ সম্পর্কে বক্তব্য দিতে গিয়ে তিনি তাকে ‘নায়ক’ হিসেবে সম্বোধন করেন।

বেগম সেলিমা রহমান বলেন, ‘করোনা মহামারির মার্চ থেকে এখন পর্যন্ত আমরা দেখছি সরকার মিথ্যা বিবৃতি দিয়ে জনগণকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করছে। যে সময় মানুষের জীবন বাঁচে না, মানুষ জীবন বাঁচানোর জন্য হাসপাতালে দৌড়াদৌড়ি করছে, তখন আমাদের ডাক্তাররা পিপিই পাচ্ছে না, পিপিই না থাকায় তারা চিকিৎসা দিতে পারছে না। মানুষ যখন চিকিৎসা পাচ্ছে না তখন রাস্তায় মরছে।’

‘এই সরকারের ক্ষমতায় থাকার কোনো নৈতিক অধিকার নেই’ মন্তব্য করে তিনি বলেন, ‘আমরা দেখতে পেয়েছি, এই করোনাকালে সরকার একটা বাজেট দিয়েছে, সেই বাজেট সম্পূর্ণ তাদের নিজেদের সুবিধার জন্য।’

সেলিমা বলেন, ‘সরকারের পৃষ্ঠপোষকতায় যারা আছে তারা এই করোনাকালকে ব্যবসার মৌসুম হিসেবে নিয়েছে। ব্যবসার মাধ্যমে তারা নিজেরা ধনকুবের হবে।’

স্বাস্থ্য খাতে বেহাল অবস্থা থাকলেও সচিব-মন্ত্রীরা বড় বড় কথা বলছেন উল্লেখ করে বিএনপির এই নীতিনির্ধারক বলেন, বিএনপি জনগণের পাশে থাকতে ফান্ড জোগাড় করে ত্রাণ দিচ্ছে।

‘সরকার প্রণোদনার নামে প্রহসন করছে। তারা যে ত্রাণ দিয়েছে, যে প্রণোদনা দিয়েছে, তাদের দলীয় লোকদের দিয়েছে। এটা তাদের কাছে ব্যবসায়িক মহামারি হিসেবে এসেছে। মানুষ যে মারা যাচ্ছে সে চিন্তা তাদের নেই।’

‘সাহেদ করিম সরকারের অতি ঘনিষ্ঠ’ মন্তব্য করে তিনি আরও বলেন, ‘এখানে আলোচনায় আসছে যে, আমাদের বিশিষ্ট টক-শোর নায়ক সাহেদ করিম। সাহেদ করিমের রিজেন্ট হসপিটাল। আমরা কোন সাহেদের কথা বলব, একের পর এক সাহেদ আসছে। সাহেদের আগে ছিল পাপুল সাংসদ। সেই সাংসদ এবং তার স্ত্রী অবৈধ উপায়ে উপার্জন করে দুই হাতে টাকা বিলিয়ে সংসদ সদস্য হয়েছে। তারপর আসছে পাপিয়া, তিনি একজন প্রভাবশালী আওয়ামী লীগ নেত্রী। তিনি বিভিন্নভাবে তদবির বাণিজ্য করে বিত্তবৈভবের মালিক হয়েছেন। এভাবে যদি আমরা হিসাব করি, তাহলে দেখা যাচ্ছে আওয়ামী লীগের প্রতিটি মূলে মূলে দুর্নীতির ছোঁয়া রয়েছে। যে ছোঁয়া আজ বাংলাদেশকে গ্রাস করছে। যে ছোঁয়া আজ আওয়ামী লীগকে গ্রাস করে ফেলেছে, নিচ থেকে ওপর পর্যন্ত।

সেলিমা বলেন, একজন সাহেদ করিমের কথা বলা হচ্ছে। নেপথ্যে যারা তারা কোথায়? আমরা বিচারহীনতার সংস্কৃতির মধ্যে বাস করছি। সকলকে এর বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

বিএনপির কমিউনিকেশন সেলের সম্পাদক জহির উদ্দিন স্বপনের সঞ্চালনায় সভায় অন্যদের মধ্যে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকার, যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি বক্তব্য রাখেন।

শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, [email protected] ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।