রাজশাহীতে ফাস্ট ফুড খাবারের এক অনন্য নাম ‘চিলিস’

নিউজ ডেস্ক

নিজস্ব প্রতিবেদক:

স্বাদ,রং আর গন্ধ। মানুষের রুচির সাথে নিত্য পরিবর্তনশীল। সবাই চায় একটু ভিন্ন স্বাদ, একটু ভিন্ন ঘ্রাণ। ভোক্তারা চান স্বাস্থ্যকর মুখরোচক খাবার আর প্রতিষ্ঠান চায় সুনাম।

তারই ধারাবাহিকতায় রাজশাহীতে ফাস্ট ফুড খাবারে অনন্য মাত্রা যোগ করেছে চিলিস। সব ধরনের মানুষের চাহিদা ও সাধ্যের মধ্যে খাবার পাওয়া যাচ্ছে চিলিসে। সব ধরনের আইটেম থাকলেও সবার কথা চিন্তা করে তাদের মেনু কে সাজিয়েছে নতুন আঙ্গিকে। বিশেষ করে ছাত্র-ছাত্রী ও সব বয়সের ক্রেতার চাহিদায় প্যাকেজ এগ ফাইড রাইস পাওয়া যাচ্ছে মাত্র ১৫০ টাকায়।

প্যাকেজের এগ ফ্রাইড রাইস খেতে আসা রিয়া বলেন, খাবারটি বেশ কম দাম। তাই আমরা প্রায় সবাইকে নিয়ে প্যাকেজের এগ ফ্রাইড রাইস খেতে আসি।

এছাড়া চিলিসের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে মাস ব্যাপি প্রায় সকল খাবারের উপর বিষেশ ছাড়ও দেওয়া হয়। তখনও তাই বন্ধু-বান্ধব বা পরিবারসহ সবাই মিলে খেতে আসা হয় এখানে বলেও তিনি জানান।

১৯৯৮ সালে চালু হওয়া রাজশাহীর এই রেস্টুরেন্ট বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছে সাধারন মানুষের মাঝে। আর এই জনপ্রিয়তার পেছনে রয়েছে চিলিসের ৭ জন শেফ। যারা একেক জন এক একটি আইটেম তৈরী করে থাকে বলে জানা গেছে।

চিলিসের হেড শেফ চঞ্চলের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, এখানে যে আইটেমগুলো পাওয়া যাচ্ছে তা খুব সূলভমূল্য। আমরা সব সময় মানসম্মত ভাবে চেষ্টা করি ক্রেতা দের চাহিদা অনুযায়ী খাবার পরিবেশন করার। তারপরও যদি কোনো সমস্যা মনে হয় তাদের কাছে তাহলে আমাদের সরাসরি বলার জন্য অনুরোধ করি।

চিলিসের তরুন উদ্গ্যেক্তা হাসিনুর রহমান টিংকু বলেন, তিনি প্রথমে ঢাকায় ছোট করে একটি ফাস্ট ফুডের দোকান দেন তারপর, কিছুদিন যেতে মনে হয় রাজশাহীতে এমন কিছু হলে মন্দ হয়না। তাই আমি এখনে চিলিস দিই। আর সেই প্রথম দিন থেকে এখনো সেই খাবারের মানে বেশ ভালোই চলছে প্রতিষ্ঠানটি।

আর ফাস্ট ফুড খাবারে আমাদের এই নতুন প্যাাকেজটি গড়ে ২৫০ জন লোক প্রতিদিন খেতে আসে। এটার মধ্যে যে উপাদান গুলো দেয়া হয় তা খুব মানসম্মত। তাই খাবারের প্রতি মানুষের চাহিদাও থাকে ব্যাপক। আর দাম টাও খুব কমের মধ্যে হওয়া সাচ্ছন্দ বোধে খেথে পারেন সাধারন মানুষ বলেও তিনি জানান।

স/অ

 

 

শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, [email protected] ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।