রাজশাহীতে চোখের জলে দেবী দুর্গাকে বিদায় জানালেন ভক্তরা

নিজস্ব প্রতিবেদক:

ঢাকের তালে চোখের জলে অকৃত্রিম ভালোবাসায় দেবী দুর্গাকে বিদায় জানানোর মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে সনাতন হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব দুর্গোৎসব।

আজ সোমবার (২৬ অক্টোবর) দুপুরের পর থেকে রাজশাহী নগরের পদ্মাপাড়ে শুরু হয় প্রতিমা বিসর্জন। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের কারণে এবার প্রশাসনের নির্দেশনা থাকায় সন্ধ্যার মধ্যেই প্রতিমা বিসর্জন শেষ করা হয়।

চণ্ডীপাঠ, বোধন ও দেবীর অধিবাসের মধ্য দিয়ে গত ২২ অক্টোবর থেকে শুরু হয় বাঙালি হিন্দু সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় উৎসব দুর্গাপূজা। সোমবার ছিল বিজয়া দশমী।

এবার প্রতিমা বিসর্জনের সময় শোভাযাত্রা বা গান-বাজনায় নিষেধাজ্ঞা ছিল। কিন্তু দেবী দুর্গার উৎসবে মনে রং না লাগিয়ে কী থাকা যায়! তাই তো সেই রংয়ে রাঙা হলো দেবী দুর্গার মুখও। মণ্ডপে মণ্ডপে বিসর্জনের পর হয় ‘সিঁদুর বরণ’। এটি শুরু হয় বিবাহিত নারীদের সিঁদুর খেলার মাধ্যমে।

বিদায়ের সময় নগরের বিভিন্ন মণ্ডপ থেকে ট্রাকে করে প্রতিমা নিয়ে যাওয়া হয় ঘাটে। সেই ট্রাকে ওঠেন ভক্তরা। প্রতিমা বিসর্জনের সময় নগরজুড়ে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কঠোর নিরাপত্তা বলয় চোখে পড়েছে।

রাজশাহী হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শ্যামল কুমার ঘোষ বলেন, এ বছর করোনার জন্য আমরা উৎসবের আয়োজনগুলোকে সীমিত করেছি। সেভাবে আনন্দ উদযাপনের কোনো রেশ নেই। মায়ের কাছে প্রার্থনা করেছি যেন আমরা আগামীবার একটি সুন্দর উৎসব উদযাপন করতে পারি। আগামী বছর দেবী দুর্গা নিশ্চয় আসবেন এক শান্ত পৃথিবীতে।

 

শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, [email protected] ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।