রাজশাহীতে অ্যারাইজ ধানের মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক:

সারাবিশ্বে চলমান কোভিড-১৯ মহামারীর প্রভাবে খাদ্য সংকট মোকাবেলায় বায়ার ক্রপসায়েন্স লি. গত জুন মাসে সারাদেশে এক হাজার ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক চাষির মধ্যে বিনা মূল্যে তিনশত মেট্রিকটন অ্যারাইজ এজেড-৭০০৬ হাইব্রিড ধান বীজ বিতরন করে।

সেই ধান বীজ দিয়ে উৎপাদিত ধান এখন মাঠ পর্যায়ে কৃষকেরা কাটা নিয়ে ব্যস্ত রয়েছে।তারই ধারাবাহিকতায় আজ মঙ্গলবার রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলায় রিসিকুল ইউনিয়নের আমতলী ঝিকরাপাড়া গ্রামে অ্যারাইজ এজেড-৭০০৬ হাইব্রিড ধানের মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত হয়।

মাঠ দিবস অুনষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন গোদাগাড়ী উপজেলার কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার কৃষিবিদ মো মতিয়র রহমান, বায়ার ক্রপস সায়েন্স লি. এর ক্যাম্পেইন অ্যাকটিভেশন ম্যানেজার কৃষিবিদ মোঃ শাহান সেলিম খান ও টেরিটরি এক্সিকিউটিভ কৃষিবিদ মোঃ হাফিজুর রহমান।

মাঠ দিবস অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন এলাকার উপসহকারী কর্মকর্তাসহ ও প্রায় তিন শতাধিক কৃষক। মাঠে ধানের ফলন হয় বিঘা প্রতি ২৪ থেকে ২৫ মন হারে।

বায়ার ক্রপস সায়েন্স লি. টেরিটরি এক্সিকিউটিভ কৃষিবিদ মোঃ হাফিজুর রহমান জানান, এ ধানের চাল মধ্যম চিকন আর ধান ঝরে পড়ে না। ধান গাছের উচ্চতাও ভাল হওয়ায় যা গো খাদ্যের চাহিদা মেটাতে সহায়ক হচ্ছে। ধানটি উচ্চ ফলনশিল ও রোগ বালাই কম হওয়ায় কৃষকরা খুব খুশি । এই ধানের চারা রোপনের ১০ দিন পর আকস্মিক বন্যার ডুবে গেলে ২ সপ্তাহপর্যন্ত ফসলের ক্ষতি হয় না। আর ধানের জীবনকাল ১২৫-১৩০ দিন হওয়ায় আগাম রবি শস্য সহজেই আবাদ করা যায়।