যুদ্ধবিরতি শেষ হতেই গাজায় ইসরায়েলের হামলা, নিহত ১৮৪

 

সিল্কসিটি নিউজ ডেস্ক

যুদ্ধবিরতি শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই গাজায় ভয়াবহ বিমান হামলা শুরু করেছে ইসরায়েল। শুক্রবার ফিলিস্তিনি কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ইসরায়েলের হামলায় ১৮৪ জন ফিলিস্তিনি প্রাণ হারিয়েছেন, আহত হয়েছেন ৫৮৯ জন। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরার এক প্রতিবেদন থেকে এই তথ্য জানা যায়।

৭ অক্টোবর ইসরায়েলি ভূখণ্ডে হামলা চালায় মুক্তিকামী ফিলিস্তিনিদের সশস্ত্র গোষ্ঠী হামাস। এতে ১৪০০ ইসরায়েলি নাগরিক প্রাণ হারায়। জবাবে গাজা উপত্যকায় নির্বিচারে হামলা শুরু করে ইসরায়েল। বিমান হামলা ও স্থল অভিযানে ১৩ হাজারের বেশি ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন, আহত হয়েছেন ২৫ হাজারেরও বেশি। তাদের বেশিরভাগই বেসামরিক। সামরিক হতাহত এড়াতে বিশ্বজুড়ে যুদ্ধবিরতির আহ্বান জানানো হচ্ছিল। হামাসের পক্ষ থেকেও প্রথম এমন আভাস মিলে মঙ্গলবার। ২২ নভেম্বর মধ্যস্থতাকারী কাতারের জানায়, বেশ কিছু শর্ত মেনে দুই পক্ষ রাজি হয়েছে। দুই দফায় বাড়া সেই যুদ্ধবিরতি শেষ হয় শুক্রবার। এরপর থেকেই গাজায় হামলা শুরু করেছে ইসরায়েল।

ইসরায়েলের সেনাবাহিনী এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘গাজা উপত্যকায় হামাসের বিরুদ্ধে তারা আবার যুদ্ধ শুরু করেছে। হামাস ইসরায়েল ভূখণ্ডে হামলা চালিয়ে যুদ্ধবিরতি ভঙ্গ করেছে।’

শুক্রবার সকালে যুদ্ধবিরতি শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে গাজার দক্ষিণাঞ্চলে খান ইউনিস এলাকায় হামলা শুরু করে ইসরায়েল। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, খান ইউনিস থেকে নিরাপদ আশ্রয়ের খোঁজে পালাতে শুরু করেছেন বেসামরিকরা।

অন্যদিকে ইসরায়েলি ভূখণ্ডেও হামলা চালিয়েছে হামাস। তবে কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।