ম্যাখোঁর বক্তব্যের নিন্দায় এবার সরব হলো আরব খ্রিস্টানরা

মহানবী মুহাম্মদ (সা.)-এর ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশ থেকে ফরাসি প্রেসিডেন্ট ম্যাখোঁর বিরত না থাকার বক্তব্যের প্রতিবাদে এবার আরব খ্রিস্টানরাও যুক্ত হয়েছেন।

কাতারভিত্তিক টিভি চ্যানেল আল-জাজিরার লেবানন প্রতিনিধি জালাল শহদা এক টুইট বার্তায় জানান, ‘আমি জালাল শাহদা। একজন আরব খ্রিস্টান। ইসলামের মুহাম্মদ (সা.)-এর অবমাননার তীব্র নিন্দা জানাই।’

লেবাননের খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বী আরেক সাংবাদিক গাদাহ উয়াইস এক টুইট বার্তায় জানান, ‘আমি মুসলিমদের অনুভূতিতে আঘাতের প্রতিবাদ জানাই। ইসলাম ও মুসলিমদেরকে সন্ত্রাসের অপবাদের নিন্দা জানাই।’

জর্দানের আয়মান দাবাবনেহ টুইটারে বলেন, ‘যে আমার মুসলিম ভাইদের সম্মান না করে অবমাননা করে, সে আমাকেও জর্দানের একজন খ্রিস্টান হিসেবে সম্মান করবে না।’

মহানবীর অবমাননার প্রতিবাদে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটার ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রামে হ্যাশটেগ দিয়ে রাসুল অবমাননার প্রতিবাদ শুরু হয়।

মাইকেল আইয়ুব নামের একজন খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বী টুইটারে লেখেন, ‘অন্যের ধর্ম বা নবীকে নিয়ে যারা কটূক্তি করে ও অবজ্ঞা করে আমি তাদের ঘৃণা করি।’

এ ছাড়া অনেক খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীকে টুইটারে ‘আমি খ্রিস্টান, ইসলামের নবীর অবমাননার প্রতিবাদ করছি, ‘রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম’ লেখা সংবলিত ছবি পোস্ট করতে দেখা যায়।

গত বুধবার (২১ অক্টোবর) এক বক্তব্যে ফরাসি প্রেসিডেন্ট ম্যানুয়েল ম্যাখোঁ বলেন, ‘কার্টুন প্রকাশ থেকে ফ্রান্স কখনো বিরত থাকবে না।’ তার বক্তব্য প্রকাশের পর থেকে বিশ্বের মুসলিমরা প্রতিবাদ শুরু করে। অনেক দেশের স্থানীয় বাজার ফরাসি পণ্য বয়কট শুরু করে। ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসের কয়েকটি উঁচু উঁচু দালানে মহানবী মুহাম্মাদ (সা.)-এর ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশ করতে দেখা যায়।

 

সূত্রঃ কালের কণ্ঠ

শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, [email protected] ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।