মেস ভাড়া কমানোর দাবি রাবি ছাত্র ফেডারেশনের

নিউজ ডেস্ক
  • 15
    Shares

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাবি:
শিক্ষার্থীদের মেস ভাড়া কমানো ও অস্বচ্ছল শিক্ষার্থীদের জন্য আর্থিক সহায়তা প্রদানের দাবি জানিয়েছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) শাখা ছাত্র ফেডারেশনের নেতাকর্মীরা। বৃহস্পতিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক লুৎফর রহমানের কাছে তারা এ বিষয়ে স্মারকলিপি প্রদান করেন।

এতে নেতাকর্মীরা বলেন, করোনা ভাইরাসের কারণে প্রায় চার মাসেরও বেশি সময় ধরে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের একটা বড় অংশ অনাবাসিক অর্থাৎ মেসে থাকেন। মহামারীকালীন বহু শিক্ষার্থীর পরিবারের উপার্জন কমে গেছে। অনেক পরিবারের উপার্জন একেবারেই বন্ধ হয়ে গেছে।

অনেক শিক্ষার্থী আছেন যারা পার্টটাইম চাকুরী বা টিউশনি করে নিজের লেখা-পড়া ও থাকা-খাওয়ার ব্যবস্থা করেন। অনেকে ছাত্রাবস্থায় পরিবারের আর্থিক দায়িত্বও পরিচালনা করে থাকেন। কিন্তু চলমান সময়ে টিউশনি এবং উপার্জন একেবারেই বন্ধ থাকার কারণে বহু শিক্ষার্থী চরম আর্থিক সংকটে পড়েছেন।

চলমান মহামারীর সময়ে সমাজের আর সকল মানুষের মতো শিক্ষার্থীরাও চরম উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা, ভয় এবং হতাশার মধ্যে দিনাতিপাত করছেন। এর মধ্যে মেস ভাড়া পরিশোধ করতে না পারায় অনেক শিক্ষার্থী চরম বিপাকে পড়েছেন।

একদিকে আর্থিক সংকট অন্যদিকে মেস মালিকদের তাগাদায় প্রাত্যহিক জীবনযাপনে নেমে এসেছে চরম অশান্তি ও দুশ্চিন্তা। করোনা মহামারী সময়ে অনেক শিক্ষার্থী পরিবার চরম খাদ্য সংকটে পড়েছেন। ন্যূনতম চিকিৎসা এবং খাদ্যের চাহিদা মেটাতেই হিমশিম খাচ্ছেন।

আর্থিক সংকটে নিমজ্জিত পরিবারগুলোর পক্ষে সন্তানের লেখাপড়ার খরচ বা মেস ভাড়া নির্বাহ করা একেবারেই অসম্ভব হয়ে পড়েছে। সেই সাথে যেসব শিক্ষার্থী নিজে উপার্জন করে তার সার্বিক ব্যয় নির্বাহ করতো তাদের উপার্জন বন্ধ হওয়ায় তারা এখন সীমাহীন সংকটে নিমজ্জিত।

এমতাবস্থায় আমরা মনে করছি সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় অস্বচ্ছল শিক্ষার্থীদের জন্য আর্থিক সহায়তা একান্ত প্রয়োজন। একই সাথে শিক্ষার্থীদের মেস ভাড়া অন্তত ৫০ শতাংশ কমানো বা মওকুফ করা প্রয়োজন।

পাশাপাশি আমরা মনে করি, যে সকল মেস মালিক কেবল মেস ভাড়ার উপর নির্ভরশীল, যাদের উপার্জনের অন্য কোন সংস্থান নেই তাদের জন্য বিশেষ ভর্তুকি দরকার। আপনার মাধ্যমে আমরা রাজশাহী অঞ্চলের শিক্ষার্থীদের চলমান আর্থিক সংকট নিরসনের জন্য সরকারের কার্যকর পদক্ষেপ প্রত্যাশা করছি।

স/অ

শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, [email protected] ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।