ভোটের দিন কোনো থ্রেট দেখছি না: আইজিপি

৭ জানুয়ারি জাতীয় নির্বাচনের ভোটের দিনের কোনো থ্রেট আছে কি না, এমন প্রশ্নের জবাবে পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন বলেছেন, এখন পর্যন্ত আমরা কোনো থ্রেট দেখছি না। এরপরও আমরা গোয়েন্দা বিভাগকে দায়িত্ব দিয়েছি। তারা যে তথ্য দেবে, সে আলোকে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সব প্রস্তুতি নিতে আমরা দৃঢ় প্রতিজ্ঞ ও প্রস্তুত।

বৃহস্পতিবার (৩০ নভেম্বর) নির্বাচন ভবনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী হাবিবুল আউয়ালসহ কমিশনারদের সঙ্গে বৈঠক শেষে আইজিপি এসব কথা বলেন।

দেশে এখনো সহিংসতা চলছে। যানবাহনে আগুন দেওয়া হচ্ছে, এ প্রসঙ্গে আইজিপি বলেন, সহিংসতা যারা করছে তারা বাসে আগুন দিচ্ছে, গাড়িতে আগুন দিচ্ছে, ট্রেনে আগুন দিচ্ছে। এদের মধ্যে অনেকে অ্যারেস্ট হচ্ছে। তবে আমরা তৎপর। আমাদের তৎপরতার কারণে রাস্তাঘাটে সাধারণ মানুষের উপস্থিতি বেড়েছে। বর্তমানে ৮০ শতাংশ গাড়ি রাস্তায় চলাচল করছে। প্রায় সব কিছুই স্বাভাবিক। যারা চোরাগুপ্তা হামলা চালাচ্ছে, দেশের আইন অনুযায়ী কঠোর ব্যবস্থা নেবো।

কমিশনের সঙ্গে বৈঠক প্রসঙ্গে আইজিপি বলেন, আমরা সিইসি মহোদয়ের সঙ্গে কথা বলেছি। যখনই নির্বাচন আসে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীসহ সবই নির্বাচন কমিশনের অধীনে চলে আসে। ইসির নির্দেশনা অনুযায়ী আমরা কাজ করি। অবাধ ও সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন করার জন্য আইন অনুযায়ী যে কাজ করা দরকার, নির্বাচন কমিশন তাই করে থাকে। আমরা নির্বাচন কমিশনের নির্দেশ অনুযায়ী কাজ করতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। আমরা আশা করছি, ইসির নির্দেশনা অনুযায়ী একটি অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন দেশবাসীকে উপহার দিতে পারবো।

লক্ষীপুর ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পুলিশের সহায়তায় প্রকাশ্যে সিল মারা হয়েছে। এ প্রসঙ্গে পুলিশ প্রধান বলেন, এ ঘটনা আমার জানা নেই। তবে কারো ত্রুটি পেলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। যে কোনো নির্বাচনে আইনবহির্ভূত কাজে পুলিশের লোক হোক বা যে কোনো লোক হোক, যার বিরুদ্ধে ত্রুটি পাবো, আমরা ব্যবস্থা নেবো।

এসময় আইজিপির সঙ্গে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) প্রধান হারুন অর রশীদ উপস্থিত ছিলেন।