বৈরুতের পাশে দাঁড়াতে বিশ্ব নেতাদের বৈঠক

নিউজ ডেস্ক
  • 34
    Shares

ভয়াবহ বিস্ফোরণে বিপর্যস্ত লেবাননের পাশে দাঁড়িয়েছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ। গত মঙ্গলবার রাজধানী বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণে দেড় শতাধিক নিহত এবং পাঁচ হাজারের বেশি আহত হয়।

এদিকে, বৈরুতের জন্য মানবিক সহায়তা প্রদানের লক্ষ্যে বৈঠকে বসতে যাচ্ছেন বিভিন্ন দেশের নেতারা। পাঁচদিন আগে ভয়াবহ বিস্ফোরণে কেঁপে উঠেছিল বৈরুত।

জাতিসংঘ এবং ফ্রান্সের যৌথ উদ্যোগে এক ভার্চ্যুয়াল কনফারেন্সের আয়োজন করা হয়েছে। লেবাননের স্থানীয় সময় দুপুর ২টার দিকে ওই কনফারেন্স শুরু হবে। এতে বিভিন্ন দেশের নেতারা যোগ দেবেন।

এই মুহূর্তে কিভাবে বৈরুতের পাশে দাঁড়ানো যায় সে বিষয়ে আলোচনা করবেন তারা। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, তিনি ওই ভিডিও কনফারেন্সে যোগ দেওয়ার পরিকল্পনা করছেন।

গত মঙ্গলবার বৈরুত বন্দরে ওই প্রাণঘাতী বিস্ফোরণের কারণ এখনও শতভাগ নিশ্চিত না হলেও সংশ্লিষ্টদের বিশ্বাস, বন্দরের গোডাউনে প্রায় ছয় বছর ধরে মজুত রাখা বাজেয়াপ্ত ২ হাজার ৭৫০ টন অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট থেকেই এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। ওই বিস্ফোরণে ৩ লাখের বেশি মানুষ গৃহহীন হয়ে পড়েছে।

ভয়াবহ ওই বিস্ফোরণের তাণ্ডবে বৈরুত শহরের প্রায় অর্ধেকটাই ধূলিসাৎ হয়ে গেছে। বিস্ফোরণের প্রভাব এতটাই তীব্র ছিল যে দেড়শ’ কিলোমিটার দূর থেকেও তা অনুভব করা গেছে। বিস্ফোরণের ধাক্কায় ৪ দশমিক ৫ মাত্রার ভূমিকম্পের মতো কম্পন সৃষ্টি হয়েছিল বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

এদিকে, ভয়াবহ ওই বিস্ফোরণে ঘটনাকে কেন্দ্র করে শনিবার সরকারবিরোধী বিক্ষোভে বৈরুতের পথে নেমে আসেন বিক্ষোভকারীরা। সে সময় বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে টিয়ার গ্যাস ছোড়ে পুলিশ।

বিক্ষোভে বলপ্রয়োগ ও কাঁদানেগ্যাস ছোড়া শুরু করলে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়ায় কিছু বিক্ষোভকারী। মঙ্গলবারের ওই বিস্ফোরণ গোটা বৈরুতকে ধ্বংসস্তূপে পরিণত করে। সরকারের বিরুদ্ধে দায়িত্বে অবহেলা ও দুর্নীতির অভিযোগ তুলেছে ক্ষুব্ধ জনতা।

ব্যাপক দুর্নীতি বন্ধ এবং রাজনীতিতে সংস্কার চেয়ে কিছুদিন ধরেই লেবাননে বিক্ষোভ চলছিল। বৈরুতের ভয়াবহ বিস্ফোরণ সেই ক্ষোভের আগুনে ঘি ঢেলে দিয়েছে। সরকারের গাফিলতির কারণে এই বিস্ফোরণ ঘটেছে দাবি করে গত বৃহস্পতিবার থেকে রাজপথে বিক্ষোভে নামতে শুরু করে হাজারো মানুষ।

এদিকে, ইউরোপীয় ইউনিয়ন-সহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ বিপর্যস্ত বৈরুতের পাশে দাঁড়িয়েছে। ইতোমধ্যেই দেশটিতে ইতালি, ফ্রান্স, ইরাক, ইরান, কুয়েত-সহ বিভিন্ন দেশ থেকে মানবিক ও মেডিকেল সহায়তা পাঠানো হয়েছে। সম্প্রতি ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁও বৈরুতে সফর করেছেন। তিনি দু’টি বিমানে করে উদ্ধারকর্মীদের একটি দল ও মানবিক সহায়তা নিয়ে বৈরুতে গিয়েছেন।

অপরদিকে, টেলিভিশনে দেওয়া এক ভাষণে লেবাননের প্রধানমন্ত্রী হাসান দিয়াব জানিয়েছেন, দেশজুড়ে যে সংকট তৈরি হয়েছে তা সমাধানে তিনি আগাম নির্বাচনের ডাক দেবেন। এ বিষয়ে সোমবার মন্ত্রিসভায় বৈঠক হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, [email protected] ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।