বন্ধ হলো রাজশাহীর করোনা বিশেষায়িত মিশন হাসপাতাল

নিউজ ডেস্ক

রাজশাহীর একমাত্র করোনা বিশেষায়িত হাসপাতাল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। করোনার প্রকোপ কমে যাওয়ার কথা বলে গত ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে  খ্রিস্টান মিশনারী হাসপাতালটি বন্ধ করে দেয় কর্তৃপক্ষ। এখন সেখানে চলছে সংস্কার কার্যক্রম।

বৃহস্পতিবার মিশন হাসপাতালের সামনে দেখা গেছে, খ্রিস্টিয়ান মিশন হাসপাতালের প্রধান ফটকে তালা ঝুলছে। বাইরে থেকে দেখা যায় হাসাপাতালের ভেতরে সুনসান নীরবতা। গেটের পাশে একটি ব্যানারে লেখা আছে— অত্র হাসপাতালের করোনা চিকিৎসার কার্যক্রম শেষ হয়েছে। বর্তমানে জীবাণুমুক্তকরণ, সংস্কার ও পুনর্গঠন কাজ চলছে আগামী পহেলা জানুয়ারি, ২০২১ থেকে হাসপাতালের চিকিৎসা কার্যক্রম পুনরায় শুরু হবে।

আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজশাহী বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক গোপেন্দ্রনাথ আচার্য এ তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশেই ভাড়ায় চালিত ডেডিকেটেড হাসপাতাল বন্ধ করে এখন মূল হাসপাতালগুলোতেই চিকিৎসার ব্যবস্থা করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। সেই নির্দেশনা অনুযায়ীই এ কাজ করা হচ্ছে। ঢাকাতেও সেই নির্দেশনা মানা হচ্ছে।

জানতে চাইলে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. সাইফুল ফেরদৌস জানান, রাজশাহীর খ্রিস্টিয়ান মিশন হাসপাতালে করোনা রোগীদের সেবা দিতে সমস্যা হচ্ছিলো। রোগীর সংখ্যাও কমে যাওয়ায় রামেকে অত্যাধুনিক সরঞ্জামাদির ব্যবস্থা করে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। কেবিনও প্রস্তুত রাখা হয়েছে। তাই কোনো সমস্যা নেই। সব করোনা রোগীদের এখন রামেক হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

এদিকে জানা গেছে, দেশে কোভিড-১৯ সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় এ বছরের এপ্রিল মাসে বেসরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত কয়েকটি হাসপাতালের সঙ্গে চুক্তি করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। চুক্তি অনুযায়ী এসব হাসপাতাল কোভিড-১৯ সংক্রমিতদের চিকিৎসা দিত। খরচ বহন করত সরকার। সেই চুক্তি অনুযায়ী এ হাসপাতালের সঙ্গে মাসিক ১২ লাখ টাকা ভাড়ায় চুক্তি করে মন্ত্রণালয়।

শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, [email protected] ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।