বগুড়ায় কুকুর বাঁচাতে গিয়ে লাশ হলেন গৃহবধূ

সিল্কসিটি নিউজ ডেস্ক:

বগুড়ার সারিয়াকান্দিতে গৃহবধূ চায়না বেগম (৫২) কয়েক দিন ধরে অসুস্থ। বুধবার দুপুরে তিনি স্বামীর সঙ্গে হাসপাতালে গেলেন, কিন্তু রোগী হিসেবে নয়, লাশ হয়ে। উপজেলার দেবডাঙ্গা বাঁধের ওপর পাকা রাস্তায় কুকুর বাঁচাতে গেলে স্বামীর মোটরসাইকেল থেকে পড়ে তার মৃত্যু হয়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক শরিফুল ইসলাম এ তথ্য দিয়েছেন।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, নিহত চায়না বেগম সারিয়াকান্দি উপজেলার ফুলবাড়ি ইউনিয়নের ছাগলধরা গ্রামের জাহিদুল ইসলামের স্ত্রী। তিনি কয়েক দিন ধরে শারীরিক অসুস্থ ছিলেন। সারিয়াকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসককে দেখানোর সিদ্ধান্ত নেন। বুধবার দুপুরে তিনি স্বামী জাহিদুল ইসলামের মোটরসাইকেলের পেছনে বসে হাসপাতালের দিকে যাচ্ছিলেন।

পথিমধ্যে দেবডাঙ্গা বাঁধের ওপর পাকা রাস্তায় পৌঁছলে হঠাৎ সামনে একটা কুকুর আসে। এ সময় জাহিদুল ইসলাম ব্রেক করলে প্রচণ্ড ঝাঁকুনি হয়। এতে গৃহবধূ চায়না বেগম রাস্তায় ছিটকে পড়লে মাথায় আঘাত পেয়ে গুরুতর আহত হন। দ্রুত তাকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

সারিয়াকান্দি থানার ওসি মিজানুর রহমান জানান, হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে যাওয়ার পথে মোটরসাইকেল থেকে পড়ে এক গৃহবধূ মারা গেছেন।

সূত্র: যুগান্তর

স/রি