ফুপুকে দেখতে রাজশাহীতে এসে দূর্ভোগে ভারতীয় তিন পরিবার

নিউজ ডেস্ক
  • 448
    Shares

নিজস্ব প্রতিবেদক:

তারা এসেছিলেন ফুপুর বাড়িতে। রাজশাহীর নগরীর সুজানগর কয়েরদাঁড়া এলাকায়। তিন ভাই ইমদাদুল শেখ, রজব আলি এবং আমজাদ আলি এবং তাদের পরিবার। তাদের বাড়ি ভারতে মুর্শিদাবাদ জেলার বহরমপুরে। গত ১৪ মার্চ সোনা মসজিদ সীমান্ত দিয়ে ফুপুকে দেখতে এবং ভাগনের বিয়েতে এসেছিলেন তারা মোট ১৫ জন।

২২ মার্চ বাড়ি ফেরার জন্য গিয়ে দেখেন সীমান্ত বন্ধ। সেখানে জানতে পারেন দর্শনা সীমান্ত খোলা রয়েছে। পর দিন ২৩ মার্চ তারা দর্শনা যান। সেখানেও দেখেন সীমান্ত বন্ধ করে দিয়েছে ভারতীয় কর্তৃপক্ষ।

১৮ মে তারা উন্নয়ন সংগঠন পরিবর্তনের সহযোগিতায় অনলাইনে ভারত সরকারের কাছে আবেদন করেন। বিশেষ বিমানে যাতে তাদের দেশে ফেরানো হয়। ১৯ মে মাত্র তিন জনের ভারতে ফেরার ব্যবস্থা হয়। এর মধ্যে বিমানে ফেরার অপেক্ষায় তাদের আট জন বর্তমানে ঢাকার সাভারে রয়েছেন।

আগামী ২৫ অথবা ২৬ মে পরবর্তি ফ্লাইটে তাদের যাবার ব্যবস্থা হতে পারে। সাভারে এক আত্মিয়র বাড়িতে রয়েছেন। সেখানে এক রুমের একটি বাড়িতে তারা রয়েছেন খুব কষ্টে। বাকি চার জন এখনো রাজশাহীতে রয়েছেন বলে সিল্কসিটি নিউজকে জানিয়েছেন তাদের ফুপতো ভাই সাইনুল। যিনি কয়েরদাড়া এলাকায় থাকেন।

ছয় দিনের প্রস্তুতি নিয়ে তারা বাংলাদেশে আসলেও। দুই মাসের বেশি পার হয়ে গেছে। ফুপাতো ভাই সাইনুল দিন মজুর। পাইপ মিস্ত্রির কাজ করেন। তার উপার্জনে সংসার চলে। দীর্ঘদিন সে কাজ পায়নি। ছোট ঘরে সেখানে তারা ১৫ জন এবং ফুপুর পরিবারের সদস্য মিলিয়ে প্রায় ৩০ জন থাকছেন খুব কষ্টের মধ্যে। তারা বাংলাদেশ ও ভারত সরকারের কাছে আবেদন করেন তাদের যেনো ভারতে ফিরিয়ে দেয়া হয়।

১৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর বেলাল আহাম্মেদ জানান, একটা বিয়ের অনুষ্ঠানে তারা এসেছিল। লকডাউনের কারনে তারা আটকা পড়েন। যে পরিবারে তারা আছে তারা দরিদ্র। তাদের জন্য সরকারি সহায়তা যা আছে তা দেয়া হচ্ছে। সরকারি ভাবে তাদের যদি দেশে ফিরে যাওয়ার ব্যবস্থা করা হয় তবে ভালো হয়।

এ বিষয়ে রাজশাহীস্থ ভারতীয় উপ দূতাবাসের সহকারি হাই কমিশনার সঞ্জিব কুমার ভাট্টির সাথে যোগাযোগ করা হয় তিনি কথা বলতে রাজি হননি।

তবে হাইকমিশনের একটি সুত্র জানায়, সীমান্ত বন্ধ রয়েছে যে কারনে তারা যেতে পারছেন না। তাদের বিষয়ে খোঁজ খবর রাখছেন। তাদের খাদ্য সহযোগিতা দেয়া হয়েছে। তাদের বিষয়ে উপর মহলে জানানো হয়েছে।

সদর আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা বলেন, করনার কারনে সীমান্ত বন্ধ থাকায় বেশ কয়েকজন ভারতীয় নাগরীক রাজশাহীতে আটকা পড়েছেন। তারা এক রকম মানবেতর জীবনযাপন করছেন। বাংলাদেশ যেমন তার নাগরীকদের ভারত থেকে ফিরিয়ে এনেছে। সেভাবে এই ভারতীয় নাগরীকদেরও ফিরিয়ে নিবে এটাই প্রত্যাশা করি। এক্ষত্রে তিনি ভারতীয় হাইকমিশনের সাথে যোগাযোগ করবেন। তিনি এর জন্য সব ধরনের সহযোগিতা করবেন।

স/অ

শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, [email protected] ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।