পড়তে চাইলে ফটোগ্রাফি

নিউজ ডেস্ক

সিল্কসিটিনিউজ ডেস্ক:

নিজ হাতে ক্যামেরা নিয়ে কিছু প্রিয় মুহূর্ত বন্দী করার শখ থেকেই হয়তো ছবি তোলা শিখেছেন অনেকে। তবে এই শখ পূরণের পাশাপাশি কোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে যদি ছবি তোলার বিস্তারিত শিখতে পারেন, তাহলে নিশ্চয় মন্দ হবে না। এখন বাংলাদেশে আলোকচিত্র বিষয়ে ছোটখাটো কর্মশালা থেকে শুরু করে উচ্চশিক্ষা গ্রহণেরও সুযোগ রয়েছে। দেশের অনেক তরুণই বর্তমানে আলোকচিত্রী পেশাটি বেছে নিচ্ছেন, সফলও হচ্ছেন। অগ্রজদের সাফল্য দেখে আলোকচিত্র বিষয়ে পড়াশোনায় আগ্রহীদের সংখ্যাও বাড়ছে দিন দিন। উচ্চশিক্ষার জন্য গৎবাঁধা বিষয়গুলোর বাইরে আলোকচিত্র এক অন্যজগতের সঙ্গে শিক্ষার্থীদের পরিচয় করিয়ে দেয়।

কোথায় পড়ব?

সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে একমাত্র ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে আলোকচিত্র (ফটোগ্রাফি) নিয়ে পড়ার সুযোগ রয়েছে। ঢাবির টেলিভিশন, ফিল্ম অ্যান্ড ফটোগ্রাফি বিভাগে সম্পন্ন করা যেতে পারে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর। উচ্চমাধ্যমিক সম্পন্ন করা শিক্ষার্থীরা নির্ধারিত ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার মাধ্যমে এই বিভাগে পড়তে পারবেন।

এ ছাড়া বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানেও আলোকচিত্র বিষয়ে পড়ানো হয়। এসব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে পাঠশালা সাউথ এশিয়ান মিডিয়া ইনস্টিটিউট, কাউন্টার ফটো, বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব জার্নালিজম অ্যান্ড ইলেকট্রনিক মিডিয়া অন্যতম।

রাজধানীর ধানমন্ডিতে অবস্থিত পাঠশালা সাউথ এশিয়ান মিডিয়া ইনস্টিটিউটে রয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে চার বছর মেয়াদি বিএসএস (ব্যাচেলর অব সোশ্যাল সায়েন্স) ইন ফটোগ্রাফি কোর্স। এ ছাড়া পাঠশালায় রয়েছে এক মাস থেকে শুরু করে তিন বছর পর্যন্ত বিভিন্ন মেয়াদের ও বিভিন্ন ধাপের কোর্স।

রাজধানীর মিরপুরের প্রতিষ্ঠান কাউন্টার ফটোতে রয়েছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে এক বছরের পোস্ট গ্র্যাজুয়েট ডিপ্লোমা কোর্স। এ ছাড়া আছে এক বছরের মেন্টরশিপ কোর্সসহ এক মাস, দুই মাস ও ছয় মাসের কোর্স।

এ ছাড়া বিভিন্ন এক্সচেঞ্জ প্রোগ্রামের মাধ্যমে পাঠশালা ও কাউন্টার ফটোর শিক্ষার্থীরা দেশের বাইরেও আলোকচিত্র বিষয়ে পড়তে যাওয়ার সুযোগ পেয়ে থাকেন। আর ঘরে বসে শিখতে চাইলে অনলাইনে বিভিন্ন কোর্স তো আছেই।

কেন আলোকচিত্র নিয়ে পড়তে হবে?

অনেকেরই ধারণা, আলোকচিত্র পুরোটাই একটি ব্যবহারিক বিষয়। এখানে খাতা-কলম ধরে পড়াশোনার জায়গা কম। কিন্তু বাস্তবতা হলো, ঘরে বসে আপনি হয়তো ক্যামেরা চালানো শিখতে পারবেন। ছবির ফ্রেম, কম্পোজিশন কিংবা আলোক প্রক্ষেপণের মতো কারিগরি দিকগুলো হয়তো ছবি তুলতে তুলতে শিখে নিতে পারবেন। কিন্তু একজন পেশাদার আলোকচিত্রী হিসেবে নৈতিকতার শিক্ষা, ছবি যাচাই-বাছাই করা, ছবি নিয়ে বিশ্লেষণ করতে পারার জ্ঞান নিতে হলে এ বিষয়ে গভীরভাবে করা জরুরি। এ বিষয়ে কথা হয় পাঠশালা সাউথ এশিয়ান মিডিয়া ইনস্টিটিউটের আলোকচিত্র বিভাগের প্রধান তানভীর মুরাদের সঙ্গে। তিনি বলেন, ‘চিকিৎসা পেশাও কিন্তু একদম প্র্যাকটিক্যাল একটি পেশা। তারপরও মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থীরা নির্দিষ্ট কয়েক বছর পড়াশোনার পর প্র্যাকটিক্যাল কাজ শেখার জন্য ইন্টার্নশিপ করে। ফটোগ্রাফিও অনেকটা সে রকম। দায়িত্বশীল একজন আলোকচিত্রী হওয়ার জন্য তত্ত্বীয় ও ব্যবহারিক জ্ঞান থাকা আবশ্যক।’

তবে ফটোগ্রাফি নিয়ে পড়াশোনা করার আগে নিজের সঙ্গে বোঝাপড়া করাও জরুরি। বিষয়টির প্রতি আপনার ভালোলাগা ও প্রচুর আগ্রহ থাকলেই এই বিষয়ে পড়াশোনা ও ক্যারিয়ার গড়ার কথা ভাবা উচিত।

ভালো ক্যামেরা থাকা কতটা জরুরি?

আলোকচিত্র নিয়ে পড়াশোনা করতে হলে কিংবা ফটোগ্রাফি করতে হলে ভালো মানের একটি ক্যামেরা লাগবেই—এই ধারণা সঠিক নয়। শেখার শুরুটা হতে পারে খুব সাধারণ মানের ক্যামেরা দিয়ে।

এই বিষয়ে কাউন্টার ফটোর একাডেমিক কো-অর্ডিনেটর রিয়াদ আবেদীন বলেন, ‘শেখার জন্য শুরুতেই খুব ভালো ক্যামেরার দরকার নেই। দিন শেষে ক্যামেরা একটি যন্ত্র মাত্র। ভালো মানের ক্যামেরার চেয়েও বেশি প্রয়োজন হলো আগ্রহ। আগ্রহ থাকলে সাধারণ মানের ক্যামেরা দিয়েও ভালো ছবি তোলা সম্ভব।’

আজকাল মোবাইল ফোনেও বেশ ভালো মানের ক্যামেরা রয়েছে। হাত পাকানোর জন্য মোবাইল ফোনও মন্দ নয়।

পেশা হিসেবে আলোকচিত্রী

পেশা হিসেবে আলোকচিত্রী বেছে নেওয়া বেশ ভালো একটি সিদ্ধান্ত হতে পারে। কেননা, আলোকচিত্রকে ঘিরে এখন অনেক ধরনের কাজের সুযোগ রয়েছে। সরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে ফটোগ্রাফার পদে নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে। এ ছাড়া চাকরির সুযোগ রয়েছে দেশীয় ও আন্তর্জাতিক পত্রিকা, টেলিভিশন কিংবা গণমাধ্যমে। বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান, করপোরেট প্রতিষ্ঠান, উন্নয়ন সংস্থাতেও রয়েছে ফটোগ্রাফার পদে কাজের সুযোগ।

ইন্টারনেটের সহজলভ্যতায় দেশে ই-কমার্স ব্যবসা এখন বেশ জনপ্রিয়। এই ধরনের ব্যবসার প্রসারের সঙ্গে সঙ্গে ফটোগ্রাফারদেরও চাহিদা বেড়েছে ব্যাপক। কেননা, অনলাইনে ব্যবসায় পণ্যের ছবির মাধ্যমেই ক্রেতাকে আকৃষ্ট করতে হয়। আর ভালো মানের ছবির জন্য ডাক পড়ে ফটোগ্রাফারদের। আর বিয়ে, জন্মদিনসহ যেকোনো ধরনের অনুষ্ঠান আয়োজনের কথা চিন্তা করতে গেলে প্রয়োজনীয় সবকিছুর মধ্যে প্রথমেই আসে আলোকচিত্রীর নাম। এ ধরনের ইভেন্ট ফটোগ্রাফি করে বেশ ভালো আয় করা সম্ভব।

এ ছাড়া ডকুমেন্টারি ফটোগ্রাফারদের কাজের সুযোগ রয়েছে বিশ্বব্যাপী। ভালো মানের ছবির জন্য প্রতিবছর বিভিন্ন দেশ থেকে প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়ে থাকে। এসব প্রতিযোগিতায় রয়েছে খ্যাতি আর ভালো অঙ্কের অর্থ পুরস্কার।

শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, [email protected] ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।