প্রায় প্রতিটি প্রতিষ্ঠান দুর্নীতিতে জড়োসড়ো অবস্থা : পীর চরমোনাই

নিউজ ডেস্ক

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমির মুফতী সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম পীর চরমোনাই বলেছেন, সরকার নিয়ন্ত্রিত দেশের প্রায় প্রতিটি প্রতিষ্ঠান দুর্নীতিতে জড়োসড়ো অবস্থা। স্বাস্থ্যখাতের দুর্নীতি বিশ্ব দরবারে দেশের মর্যাদা চরমভাবে ক্ষুন্ন হয়েছে। এ খাতের সর্বশেষ নিদর্শন ড্রাইভার আব্দুল মালেক।

সৈয়দ ফজলুল করীম রহ. ইসলামিক রিচার্স সেন্টার বাস্তবায়ন কমিটি ঢাকা মহানগর উত্তর আয়োজিত দায়িত্বশীলদের সাথে মতবিনিময়কালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ড্রাইভার হয়ে দুর্নীতি করে শত কোটি টাকা, একাধিক বহুতল ভবন ও প্লটের মালিক হয়েছে সে। তাহলে বড় পদস্থদের কি অবস্থা সেটা তো স্পষ্টই অনুমেয়। কিন্তু এসব বড় বড় রাঘব-বোয়ালরা সব সময়ই থেকে যাচ্ছে ধরা ছোঁয়ার বাইরে।

নগর উত্তর সভাপতি অধ্যক্ষ শেখ ফজলে বারী মাসউদ-এর সভাপতিত্বে এবং সেক্রেটারি মাওলানা আরিফুল ইসলামের পরিচালনায় মতবিনিময় সভায় আরও বক্তব্য রাখেন হাজি আবু সাঈদ, আলহাজ্ব আনোয়ার হোসাইন, এ্যাড. শওকত হোসেন হাওলাদারসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

ইসলামী আন্দোলনের আমির আরও বলেন, তিতাসের দুর্নীতির কারণে মসজিদে গ্যাস বিস্ফোরণে ৩২ মুসল্লি প্রাণ হারিয়েছেন। ওয়াসায় দুর্নীতি হওয়া সত্ত্বেও সেখানে একই ব্যক্তিকে ১১ বছর ধরে ব্যবস্থাপনা পরিচালকের দায়িত্ব পালন করার পরেও আবার ৩ বছরের জন্য মেয়াদ বাড়ানোর পাঁয়তারা চলছে।

প্রকৌশলী সাইফুর রহমান ৩৬০ কোটির অভিযোগে স্পষ্ট হয়ে গেছে। সরকারের বিভিন্ন মহলের ইন্ধনেই দুর্নীতি বিরাজমান। যেদিকে তাকাই শুধুই দুর্নীতি আর দুর্নীতি। সরকার দুর্নীতিবাজদের শাস্তি না দিয়ে পৃষ্ঠপোষকতা করে যাচ্ছে। ফলে দুর্নীতিবাজরা বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। এসব দুর্নীতিবাজদের আইনের আওতায় এনে শাস্তির দাবিও জানান তিনি।

 

সূত্রঃ বাংলাদেশ প্রতিদিন

শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, [email protected] ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।