পুঠিয়ায় বোরকা পড়া দুর্বৃত্তের পেট্রোল দেয়া আগুনে ঝলসে গেলো কলেজ ছাত্রী

নিউজ ডেস্ক

নিজস্ব প্রতিবেদক ও পুঠিয়া প্রতিনিধি:
রাজশাহীতে বোরকা পড়া দুর্বৃত্তরা পেট্রোল ছুড়ে গৃহবধুর মুখে আগুন দিয়েছে। মঙ্গলবার সকালে পুঠিয়া উপজেলার বানেশ্বর ইউনিয়নের কাচারি মাঠ সংলগ্ন ভূমি অফিসের পিছনে এঘটনা ঘটে। পরে ওই গৃহবধুকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে ভর্তি করা হয়। তার মারাত্মকভাবে মুখোমন্ডল ঝলসে গেছে।

আহত হলেন, নাটোর সিংড়া উপজেলার মিজানুর রহমানের স্ত্রী জেরিন আক্তার (২৬)। তিনি রাজশাহী কলেজের অর্থনীতি বিভাগ থেকে মাস্টার্স পরীক্ষা দিয়েছে। তার স্বামী মিজানুর রহমান বানেশ্বরের একটি বেসরকারি ব্যাংকে কর্মরত।

তার স্বামী জানান, বিয়ের প্রায় ৯ বছর হয়ে হয়েছে। চার বছরের মেয়ে বানেস্বরে ২ বছর ধরে আছি। সকালে মেয়ে নিয়ে আরচার্ড একাডেমি স্কুলে নেয়ার পথে বোরখা পরে থাকা কেউ একজন এডিস নিক্ষেপ করে পালিয়ে যায়। পরে এলকাবাসির মধ্যমে খবর পেয়ে তাকে দ্রুত মেডিকেলে নেয়া হয়।

চার বছরের শিশু সন্তান মাশফিয়া রহমানের কথা জেরিনের সহপাঠীদের মধ্যমে জানা যায়, “সকালে স্কুল যাওয়ার সময় একজন বোরখা পরা কেউ আম্মুর মুখে পানির মত কিছু দিয়ে দেয়। তারপর লাঠি দিয়ে মুখে আগুন লাগিয়ে দেয়। এসময় রেজিন চিৎকার দিলে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। ”

জেরিনের মা জেসমিন আক্তার বলেন, ‘আমার মেয়ে ঢাকায় পড়াশোনা করতো। পরে রাজশাহী কলেজে ভর্তি হয়েছে। ঢাকায় ধানমন্ডির রায় বাজার এলাকায় থাকাকালীন এক ছেলে সঙ্গে ফেসবুকে কথা হতো। পরের দিকে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে ফোন দিয়ে বিরোক্ত করতো। কিন্তু সে যে এই কাজ করেছি তারা নিশ্চিত নয়।’

এদিকে প্রত্যক্ষদর্শী বানেশ্বর ওয়ার্ড আ.লীগের সাধারন সম্পাদক আবদুর রাজ্জাক জানান, ভোর ৭ টার দিকে এক নারীর চিৎকার শুনে ঘুম থেকে উঠে তিনি দেখেন একজন বোরকা পরিহিত নারীর শরিরে দাও দাও করে আগুন জলছে। এসময় তার পাশে দাড়িয়ে থাকা ৫ বছরের শিশু সন্তান ভয়ে কাপছে। তাৎক্ষনাত আবদুর রাজ্জাক চিৎকার চেচামেচি শুরু করলে স্থানীয় আরো কয়েকজন পতিবেশি বেড়িয়ে আসলে তারা পানি ঢেলে আগুন নিয়ন্ত্রনে এনে ওই নারীকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করেন।

জীবন্ত মানুষের গায়ে আগুন লাগার এমন দৃশ্য তিনি আগে কোন দিন দেখেননি। এমনকি এই নারীকেও তিনি আগে কোন দিন দেখেননি। ঘটনাস্থলে দুইটি বোতল ও একটি হাতুর এবং একটি কাঠের চলা পাওয়া গেছে। ধারনা করা হচ্ছে, বোতলে করে পেট্রোল এনে ওই নারীর শরিরে ডেলে কাঠের চলা দিয়ে তার গায়ে আগুন দিয়ে পালিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা বলে তিনি জানান।

পুঠিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাকিল আহমেদ বলেন, পেট্রোল ছুড়িছে দুর্বৃত্তরা। আহত গৃহবধুকে উদ্ধার করে রামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে হামলার কারণ জানা যায়নি। ঘটনাস্থল থেকে কয়েকটি আলামত উদ্ধার করা হয়েছে। আগামী কাল বুধবার সকালে এব্যপারে থানায় মামলা করবে ভুক্তভগির পরিবার বলেও তিনি জানান।

স/অ

শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, [email protected] ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

Comments are closed.