পুঠিয়ায় ১ রাতেই ৯ দোকানে চুরি

পুঠিয়া প্রতিনিধি :
রাজশাহীর পুঠিয়ার বানেশ্বর বাজারে  বিকাশ দোকানসহ এক রাতে ৯ দোকানে চুরির ঘটনা ঘটেছে। বেশ কয়েকটি দোকান থেকে নগদ টাকাসহ অন্যান্য জিনিসপত্র চুরি হয়েছে। একরাতে এতোগুলো দোকানে চুরির ঘটনায় আতঙ্কে রয়েছেন দোকান-মালিকরা।

রোববার (১১ ফেব্রুয়ারি) ভোর ৪টার দিকে রাজশাহী-ঢাকা মহাসড়কের পুঠিয়ার বানেশ্বর ট্রাফিক মোড় সংলগ্ন লতিফ সুপার মার্কেটে এ চুরির ঘটনা ঘটে।

দোকান মালিকরা জানায়, চোরেরা সংঘবদ্ধভাবে দোকানের সার্টার টেনে ভিতরে প্রবেশ করে ৯টি দোকান থেকে ২টা মোবাইল ফোন, নগদ প্রায় আড়াই লক্ষ টাকা নিয়ে যায়। তবে নগদ টাকা ছাড়া অন্য কোন মালামাল চুরি হয়নি বলে দোকান মালিকরা জানান। চুরি যাওয়া দোকানগুলো হলো ঢাকা স্টোর থেকে ৯০ হাজার, রানা টেলিকম থেকে ৮হাজার ২শ, স্মার্ট কসমেটিকস থেকে ১১হাজার, ধাম ইয়া কসমেটিকস থেকে ১১হাজার, সবুজের নগদ, বিকাশ ও সিটি কসমেটিক থেকে এক লাখ, জুঁই মনি কসমেটিকস থেকে ৯ হাজার, ব্লু বার্ড থেকে ১৪হাজার ৫০০ ও শান্ত হোসেনের মিরাক্কেল থেকে ৮ হাজার টাকা।

মার্কেটের বিভিন্ন স্থানে সিসি ক্যামেরা থাকলেও ভিতরে একজন মানকি টুপি পরে চুরি করার দৃশ্য দেখা যায়। চুরি করার সময় সিসি ক্যামেরা ঘুরিয়ে দেওয়া হয়, যার কারণে বাকিদের দেখা যায়নি।

একসঙ্গে এতগুলো দোকান চুরি হলো তখন ডিউটিরত নাইটগার্ড কি করল? এমন প্রশ্নের জবাবে বানেশ্বর বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি জুবায়ের হোসেন বলেন, আমার বাজারের নাইট গার্ড ভালো ডিউটি করে কিন্তু এই লতিফ মার্কেটে সামনে থেকে সাটার নামিয়ে দেওয়ার কারণে ঘিরে থাকে। যার কারণে বাইর থেকে ভিতরে কিছু দেখা যায় না। ফুটেজ দেখে মনে হলো ভোর বেলায় পেছনের দিক থেকে ঢুকে এ চুরির ঘটনা ঘটেছে।

পুঠিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ সাইদুর রহমান জানান, খবর পেয়ে ঘটনা স্থল পরিদর্শন করি ও সিসি ক্যামেরার ফুটেজ সংগ্রহ করা হয়েছে। আসামিদের সনাক্ত করার চেষ্টা চলছে। চোর চক্রকে গ্রেপ্তারে পুলিশ অভিযান শুরু করেছে। #