নিয়ামতপুরে সৎ মাকে কুপিয়ে হত্যা, ছেলে আটক

নিয়ামতপুর (নওগাঁ) প্রতিনিধিঃ

নওগাঁর নিয়ামতপুর উপজেলার সদর ইউনিয়নের গলাইকুড়া গ্রামে রাবেয়া বেগম (৬০) নামে এক নারীকে কুপিয়ে হত্যা করেছে তার সতিনের ছেলে শাহিন (২০)। ৭ জানুয়ারী শুক্রবার বেলা ১টার দিকে গ্রামের গবরার মোড়ে নিজ বাড়ীতে এ ঘটনা ঘটে। নিহত রাবেয়া বেগম ওই গ্রামের ইসরাইলের স্ত্রী। শাহিনকে আটক করেছে পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সদর ইউনিয়নের গলাইকুড়া (গবরার মোড়) গ্রামের ইসরাইলের আগের স্ত্রীর ছেলে শাহিন বাবা এবং সৎ মায়ের সাথে এক বাড়ীতে বসবাস করছিল। শুক্রবার ইসরাইল জুম্মার নামাজ পড়ার জন্য মসজিদে গেলে ছেলে শাহিন মর্টারের সুইচ দেওয়াকে কেন্দ্র করে সৎ মায়ের সাথে ঝগড়া শুরু করলে এক পর্যায়ে ছেলে শাহিন দা দিয়ে সৎ মা রাবেয়া বেগমের মাথায় একাধিক আঘাত করে। এতে রাবেয়া বেগম রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। তখন শাহিন মাকে জবাই করে। পরে স্থানীয়রা জানতে পারলে সাথে সাথে পুলিশকে সংবাদ দেয়। পুলিশ তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে এবং ঘাতক ছেলে শাহিনকে আটক করে।

নিয়ামতপুর সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব বজলুর রহমান বলেন, আমি সংবাদ পাওয়ার সাথে সাথে ঘটনাস্থলে আসি এবং দেখি লাশ রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে পড়ে আছে।

নিয়ামতপুর থানার অফিসার ইন চার্জ হুমায়ন কবির বলেন, শাহিন নিহত রাবেয়া বেগমের সতিনের ছেলে। কি কারণে মাকে হত্যা করলো তা এ মুহুর্তে বলা যাচ্ছে না। তদন্ত করলে জানা যাবে। এ ঘটনায় মামলা হবে বলেও জানান তিনি।

স/আর