নির্বাচন সামনে রেখে যুক্তরাষ্ট্রে করোনা সংক্রমণ নতুন উচ্চতায়

যুক্তরাষ্ট্রে বৃহস্পতিবার রেকর্ডসংখ্যক ৯১ হাজার মানুষ প্রাণঘাতী করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। দেশটির প্রেসিডেন্ট নির্বাচনকে সামনে রেখে বেশ কয়েকটি রাজ্যে সংক্রমণ ব্যাপকভাবেই বেড়েছে।

বিবিসির খবরে বলা হয়, একই দিনে এক হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে এই মহামারীতে। মৃত্যু ও আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমাগত বাড়ছে বলেই দেখা যাচ্ছে।

জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসাবে, দেশটিতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৯০ লাখে পৌঁছাতে আর বেশি বাকি নেই।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও প্রতিদ্বন্দ্বী জো বাইডেন যখন ভোটের লড়াইয়ে মুখোমুখি, তখন সংক্রমণ সংখ্যাও যেন নতুন উদ্যম নিয়ে বাড়ছে।

রয়টার্সের হিসাবে, চলতি মাসে তৃতীয়বারের মতো সংক্রমণে মৃত্যুর সংখ্যা হাজার ছাড়িয়েছে। ২১টি রাজ্যে মহামারী ঊর্ধ্বমুখী অবস্থায় আছে।

চলতি বছরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ভাগ্য নির্ধারণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখা বেশ কয়েকটি রাজ্যে আক্রান্ত বাড়ছে।

নির্বাচনী লড়াইয়ের অন্যতম ক্ষেত্র উইসকনসিনে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সমাবেশে কারণে মহামারী পরিস্থিতির অবনতির দিকে চলে যেতে পারে। গ্রিন বে’র হাসপাতালগুলো এমন হুশিয়ারিই দিয়েছে।

কয়েকটি হাসপাতাল এক যৌথ বিবৃতিতে জানায়, যে কোনো সময়ের চেয়ে এখন বড় ধরনের জমায়েত এড়িয়ে যাওয়া উচিত। বিশেষ করে উইসকনসিনের গ্রিন বে এলাকায়। যুক্তরাষ্ট্রের যেসব অঞ্চলে করোনার দ্রুত সংক্রমণ ঘটছে, তার মধ্যে এটি অন্যতম।

শুক্রবারে বেশ কয়েকটি সমাবেশকে সামনে রেখে ট্রাম্প বলেন, অনেক বেশি নমুনা পরীক্ষার অর্থ হচ্ছে অনেক বেশি করোনা শনাক্ত। আমরা সবচেয়ে ভালো পরীক্ষা করছি। মৃত্যুর সংখ্যা কমছে।

সম্প্রতি ট্রাম্পের সমাবেশে অংশগ্রহণকারীদের পরীক্ষা করার পাশাপাশি তাদের মাস্ক দেয়া হচ্ছে। কিন্তু এতে সামাজিক দূরত্ব নেই বললেই চলে। কিছু কিছু সমর্থক মাস্ক না পড়েই সমাবেশে যোগ দিচ্ছেন।

বাইডেনও তার নির্বাচনী প্রচার অব্যাহত রেখেছেন। যদিও তাতে সামাজিক দূরত্ব মেনে চলা হচ্ছে। লোকজনকে তাদের গাড়ির ভেতরে বসেই সমাবেশে অংশ নেয়ার সুযোগ দেয়া হচ্ছে।

 

সূত্রঃ যুগান্তর

শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, [email protected] ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।