নাটোর গুরুদাসপুরের ইউএনও সস্ত্রীক করোনায় আক্রান্ত

নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. তমাল হোসেনের করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। তাঁর স্ত্রী জান্নাতুল মাওয়াও কোভিড-১৯ রোগী। এই দম্পতির একমাত্র মেয়ে আগতা (৪) জ্বরে আক্রান্ত। তার নমুনা পরীক্ষার জন্য দেওয়া হয়েছে।


গুরুদাসপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসক মো. রবিউল করিম বলেন, ইউএনওর করোনা পজেটিভ ফলাফল আসে গতকাল শনিবার রাতে। তাঁর স্ত্রীর করোনা সংক্রমণ শনাক্ত হয় এক সপ্তাহ আগে।

ইউএনও তমাল হোসেন বলেন, একমাত্র সন্তানকে নিয়ে তাঁরা উদ্বিগ্ন। গত চার মাসে ৬০০ জনের বেশি মানুষের শরীর থেকে করোনাভাইরাসের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। পরীক্ষায় ৩৫ জনের ফলাফল পজেটিভ এসেছে। তবে কেউ মারা যাননি। তিনি বলেন, গত চার মাসে ১৫ থেকে ২০ জন কোভিড–১৯ রোগীর বাড়িতে গিয়েছেন তিনি।

কোভিড–১৯ রোগী বিষয়ে এলাকাবাসীর মানসিকতার পরিবর্তন ও রোগীদের প্রতি মমত্ববোধ বাড়াতে রোগীদের বাড়ির সামনে ব্যানার টাঙিয়ে দেন। তাতে লেখা থাকে, ‘করোনাভাইরাস অতিমাত্রায় ছোঁয়াচে রোগ, কিন্তু মরণব্যাধি নয়। সামাজিক ও শারীরিক দূরত্ব রক্ষা করে পরিবারকে সুস্থ হতে সহায়তা করুন।’ আক্রান্ত ব্যক্তিদের উদ্দেশ্যে লেখা থাকে, ‘মনে সাহস রাখবেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার আপনার পাশে আছেন।’

প্রথম আলো