নাটোরে লালদিঘী পাহারা দিতে গিয়ে পানিতে পড়ে পাহারাদারের মৃত্যু


নিজস্ব প্রতিবেদক :

নাটোরে লাল দীঘী পাহারা দিতে গিয়ে নোকা থেকে পানিতে পড়ে পাহারাদার নবাব (৬২) নামের এক বৃক্তির মৃত্যু হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে। নিহত নবাব নাটোরের কাঠালবাড়িয়া ঝাউতলা এলাকার বাসিন্দা। নিহত নবাবেব উচ্চ রক্ত চাপ ছিলো।

জানা গেছে, নাটোর আধুনিক মৎস চাষ প্রকল্প লালবাজার নাটোরের স্বতাধিকারী আলহাজ গোলাম নবী নাটোরে লাল দীঘী ৯৯ বছরের জন্য লিজ নিয়ে মাছ চাষ করে আসছেন। আর তার লীজকৃত দীঘী রাতের বেলা পাহারা দেন নবাব ও শরিফুল। যথারীতি গতকাল ভোরে ফজরের নামাজ শেষে আবারো দীঘী পাহারা দিতে দুটি নোকা নিয়ে নবাব ও শরিফুল দুই দিকে যান। এরপর শরিফুল এসে দেখেন নবাবেবর নোকা পানির ত্তপর ভেসে আছে কিন্তু নবাব নেই।

এরপর সবাই ধারনা করেন নবাবেবর উচ্চ রক্ত চাপ থাকায় তিনি স্টোক করেছেন এবং পানিতে পড়ে তলিয়ে যান। স্থানীয় শতশত জনগন তাকে উদ্ধার করতে ব্যার্থ হয়ে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স নাটোর স্টেশনের মাধ্যমে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স রাজশাহী সদর দপ্তরের ডুবুরী টিমের স্মরনাপন্ন হন।

খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স রাজশাহী সদর দপ্তরের লিডার আব্দুর রাজ্জাকের নেতৃত্বে একটি ডুবুরীদল সকাল ১১টা ১০ মিনিটে ঘটনাস্থলে পৌছে প্রত্যক্ষদর্শীদের দেখানো মোতাবেক উদ্ধার কাজ শুরু করে। প্রায় ১ ঘন্টা খোজাখুজির এক পর্যায়ে ডুবুরী রিপন ও আরমানের সহযোগীতায় ডুবুরী মাইনুল নবাবকে উদ্ধার করতে সক্ষম হয়। পরে তার পরিবারের নিকট লাশ হস্তান্তর করা হয়।

এইচ/আর