নতুন সংবিধান তৈরির পক্ষে গণরায় দিল চিলি

অবশেষে নতুন সংবিধান লেখার পক্ষে রায় দিয়েছে চিলির জনগণ। লাতিন আমেরিকার এই দেশটিতে দীর্ঘদিন ধরেই বিক্ষোভ চলছিল। দাবি ছিল নতুন সংবিধানের। তাই ভোটে মানুষের উপস্থিতি ছিল রেকর্ডসংখ্যক। গণমানুষের এই রায়ে সাবেক স্বৈরশাসক জেনারেল অগাস্টো পিনোশেট আমলের সংবিধান বাতিল হবে।

এ পর্যন্ত ৯০ শতাংশ ভোট গণনা শেষে দেখা যাচ্ছে, চিলির ৭৮ শতাংশ মানুষের সমর্থন নতুন করে সংবিধান লেখার পক্ষে। অসমতা আর দুর্নীতির বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন-বিক্ষোভ চলার পর গণভোটে জনমানুষের সেই আকাঙ্ক্ষারই প্রতিফলন ঘটল। গণভোটের ফলাফল স্বীকার ও শান্তিপূর্ণ ভোটের প্রশংসা করে চিলির প্রেসিডেন্ট সেবাস্তিয়ান পিনেরা বলেছেন, ‘এটা এমন এক পথের যাত্রা শুরু হলো, যে পথে আমাদের সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে।’

এক বছর আগে চিলিতে সরকারবিরোধী বিক্ষোভ শুরু হয়। বিক্ষোভের শুরু থেকেই বিক্ষোভকারীদের মূল দাবির একটি ছিল, সমাজে বিদ্যমান গভীর অসাম্য দূরীকরণে দেশের নতুন একটি সংবিধান প্রয়োজন।

গণভোট চিলির মানুষের কাছে দুটি প্রশ্ন ছিল। প্রথমত, তারা নতুন সংবিধান চায় কি না। দ্বিতীয়ত, এই সংবিধান তৈরির জন্য কেমন সংবিধান প্রণয়ন কমিটি চায় তারা। নির্বাচিত নাগরিকরা নতুন সংবিধানের খসড়া তৈরির কাজটি করবে- এমনটাই চায় বেশির ভাগ মানুষ। তারা চায় না এখানে এমপিদের যুক্ত করা হোক।

 

সূত্রঃ বাংলাদেশ প্রতিদিন

শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, [email protected] ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।