নগরীতে পুলিশের পৃথক অভিযানে হেরোইন ও ট্যাপেন্টাডল ট্যাবলেটসহ গ্রেফতার ২

নিজস্ব প্রতিবেদক :

রাজশাহী মহানগরীর পবা ও রাজপাড়া থানা এলাকায় পৃথক অভিযান পরিচালনা করে ৫০ গ্রাম হেরোইন ও ৭০০ পিস ট্যাপেন্টাডল ট্যাবলেটসহ ২ ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। রাজশাহী মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করে।

গ্রেফতারকৃত হলো মো: নাইমুর রহমান দিপ্ত (২৪) ও মো: ইকবাল হোসেন (৪৬) । নাইমুর রহমান রাজশাহী মহানগরীর পবা থানার দুয়ারি গ্রামের মো: মানিক মিয়ার ছেলে। তার বর্তমান ঠিকানা বাগধানী খামার পাড়া ও ইকবাল হোসেন রাজশাহী মহানগরীর বেলপুকুর থানার বড়ধাদাশ গ্রামের ডা: মো: ইয়াকুব আলীর ছেলে। তার বর্তমান ঠিকানা রাজপাড়া থানার লক্ষীপুর কাঁচাবাজার।

জানা যায়, গতকাল শনিবার রাত পৌনে ৯ টায় রাজশাহী মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার (অতি: ডিআইজি পদে পদোন্নতিপ্রাপ্ত) কে. এম. আরিফুল হক পিপিএম-এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার ড. মো: রুহুল আমিন সরকারের দিকনির্দেশনায় সহকারী পুলিশ কমিশনার মোসা: আরজিনা খাতুনের নেতৃত্বে এসআই কাজী জাকারিয়া ও তাঁর টিম মহানগর এলাকায় মাদকদ্রব্য উদ্ধার অভিযান ডিউটি করছিলো। এসময় তাঁরা গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারেন পবা থানার বাগধানী মোড় খামার পাড়া এলাকায় কয়েকজন ব্যক্তি হেরোইন বিক্রির জন্য অবস্থান করছে।

উক্ত সংবাদের পরিপ্রেক্ষিতে ডিবি পুলিশের ঐ টিম রাত ৯ টায় পবা থানার বাগধানী মোড় খামার পাড়া এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে আসামি নাইমুর রহমান দিপ্তকে গ্রেফতার করে। এসময় গ্রেফতারকৃত আসামির কাছ থেকে ৫০ গ্রাম হেরোইন উদ্ধার হয়। তবে অভিযানের সময় দিপ্তর সহযোগী দুইজন পালিয়ে যায়। গ্রেফতারকৃত আসামি নাইমুরের বিরুদ্ধে দেশের বিভিন্ন থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনসহ অন্যান্য আইনে একাধিক মামলা রুজু আছে।

অপর একটি অভিযানে এসআই সালেকুর রহমান ও তাঁর টিম রাত সোয়া ৮ টায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রাজপাড়া থানার লক্ষীপুর কাঁচাবাজার এলাকা হতে আসামি ইকবালকে ৭০০ পিস ট্যাপেন্টাডলসহ গ্রেফতার করে।

পলাতক আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। গ্রেফতারকৃত আসামিদের বিরুদ্ধে পবা ও রাজপাড়া থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা রুজু করে বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।