‘তোরা আমাকে ধর’ বলেই কৃষকের মৃত্যু, ৮ ঘণ্টা উঠানে পড়েছিল লাশ

নিউজ ডেস্ক
  • 22
    Shares

‘তোরা আমাকে ধর’ বলেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়লেন কৃষক আবুল কালাম। অথচ আশপাশের মানুষ আর গ্রামবাসীর সন্দেহ করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন তিনি। তাই লাশ দাফনে কেউ এগিয়ে আসতে চায়নি। ফলে বাড়ির উঠানে দীর্ঘ ৮ ঘণ্টা পড়েছিল হতভাগা এক বাবার লাশ। এমন পরিস্থিতিতে বাবার লাশ দাফনে পুলিশ ও প্রশাসনের সাহায্য চাইলেন সন্তানরা। শেষ পর্যন্ত প্রশাসন ও পুলিশের সহযোগিতায় দাফন হলো আবুল কালামের লাশ। এমন অমানবিক ঘটনা ঘটে চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে।

শুক্রবার সকালে হঠাৎ করে  হাজীগঞ্জ উপজেলার বাকিলা ইউনিয়নের বাখরপাড়া গ্রামের কৃষক আবুল কালাম (৫৫) মারা যান। করোনা সন্দেহে কেউ এগিয়ে আসেনি লাশ দাফনে। ফলে দীর্ঘ ৮ ঘণ্টা বাড়ির উঠানে পড়ে থাকে কৃষক আবুল কালামের লাশ। এমন পরিস্থিতিতে দিশেহারা মৃতের পরিবারের সদস্যরা। বড় সন্তান আবু হানিফ বাবার লাশ দাফনে পুলিশ ও প্রশাসনের সাহায্য চাইলেন। এই অবস্থায় হাজীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার বৈশাখ বড়ুয়া এবং থানার ওসি (তদন্ত) আব্দুর রশীদ লাশ দাফনের উদ্যোগ নেন। আর তাদের ডাকে ছুটে আসেন মাওলানা মো. জুবায়ের। শুক্রবার বাদ আছর সরকারের স্বাস্থ্যবিধি মেনে দাফন করা হয় আবুল কালামের লাশ।

মৃতের ছেলে আবু হানিফ আরো জানান, তার বাবা গত কয়েকদিন ধরে জন্ডিস রোগে ভুগছিলেন। এরমধ্যে শুক্রবার সকালে ‘তোরা আমাকে ধর’ এই কথা বলেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন তার বাবা।

এদিকে হাজীগঞ্জে একই দিন আরো তিনজন করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন। তারা হচ্ছেন, হাজীগঞ্জ পৌর যুবদলের আহ্বায়ক আব্দুল আউয়াল (৪৮), উপজেলার এন্নাতলী গ্রামের দুলাল মিয়াজী (৫০) এবং হাজীগঞ্জ ডিগ্রি কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী মিথিলা আক্তার (১৭)।

অন্যদিকে চাঁদপুর সদরের বড় সুন্দর গ্রামের মাহবুবুল হক পাটোয়ারী (৬০) এবং মতলব দক্ষিণের উপাদী গ্রামের আব্বাস আলী (৫৫) করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা যান। এমন পরিস্থিতিতে চাঁদপুরে একদিনে করোনার উপসর্গ নিয়ে ৫ জনের মৃত্যু ঘটে।

চাঁদপুর জেলা সিভিল সার্জন ডা. সাখাওয়াত উল্লাহ জানান, চাঁদপুরে এই পর্যন্ত করোনা পজিটিভ নিয়ে মারা গেছেন ২০ জন। আর এই সব মিলিয়ে করোনা পজিটিভ রোগী হচ্ছেন ২৫৮। এ ছাড়া সরকারি হিসেবের বাইরে আরো ২২ জন মারা গেছেন। যাদের মধ্যে করোনার উপসর্গ ছিল। সূত্র: কালের কণ্ঠ

শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, [email protected] ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।