তানোরে প্রধানমন্ত্রীসহ আ.লীগ নেতাদের ছবি দিয়ে রাস্তার জায়গা দখল

নিউজ ডেস্ক
  • 76
    Shares

নিজস্ব প্রতিবেদক:

রাজশাহীর তানোর উপজেলার গোল্লাপাড়া বাজারে হক ফার্মেসীর সামনে প্রধান সড়কের পাশে নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও সরকারি খাস জায়গায় দখল করেছেন স্থানীয় যুবলীগ নামধারী কর্মীরা। বির্তকিত এই নেতাকর্মীরা শনিবার দুপুরে লাঠি-সোঠা নিয়ে গিয়ে মহড়া দিয়ে প্রধান রাস্তার পাশে সরকারি এই জায়গাটি দখল করে সেখানে একটি সাইনবোর্ড ঝুলিয়ে দেয়। তাতে বঙ্গবন্ধু শেখে মুজিবুর রহমান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, রাজশাহী সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন ও স্থানীয় এমপি ওমর ফারুক চৌধুরীর ছবি রয়েছে। এতে লিখা রয়েছে শেখ রাশেল স্মৃতি পরিষদের জন্য নির্ধারিত স্থান। তানোর উপজেলা যুবলীগ।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, এই দখলদারদের অন্যতম হলেন, তানোর আব্দুল করিম সরকার কলেজ শাখা ছাত্রদলের সভাপতি ছিলেন এখন তানোর পৌর ছাত্রলীগের আহবায়ক ও বাস পোড়ানো মামলার আসামি ফয়সাল সরকার অমি, ওয়ার্ড যুবলীগ নেতা ও তানোর সরকারি আব্দুল করিম সরকার কলেজের প্রভাষক হাসান আলী ও আজিবর রহমান।

স্থানীয় ব্যবসায়ীরা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, জায়গাটি এখন শেখ রাসেল স্মৃতি পরিষদের নামে দখল করা হলেও পরবির্ততে বিক্রি করার উদ্দেশ্যেই দখল করেছেন যুবলীগের নামধারী নেতারা। অথচ এখানে কোনো ধরনের স্থাপনা গড়ে তোলা যাবে না বলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুশান্ত কুমার মাহাত সম্প্রতি নির্দেশ দেন। কিন্তু তিনি করোনা আক্রান্ত হয়ে ছুটিতে থাকার সুবাদে প্রধান রাস্তার পাশে সরকারি এই জায়গাটিই গতকাল দখল করেন যুবলীগের নেতাকর্মীরা।

ফয়সাল সরকার অমি বিএনপি নেতার ভাতিজাও বটে।সে ছাত্রলীগে যোগ দিয়ে তানোর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের কম্পিউটার অপারেটর হিসেবে চাকরিও বাগিয়ে নিয়েছেন।

তবে বিষয়টি নিয়ে জানতে চাইলে ফয়সাল সরকার অমি বলেন, জায়গাটি খাস হলেও সেখানে শেখ রাসেল স্মৃতি পরিষদ গড়ে তুলতে ঘরে নির্মাণ করা হয়েছে। আমারা ব্যক্তিগতভাবে জায়গাটি দখল করিনি। সংগঠনের প্রয়োজনে আগে থেকেই সেখানে ঘর তোলা ছিল। তবে ছাউনি ছিল না। আজ (গতকাল) ছাউনি তোলা হয়েছে। সংগঠনের জন্য রেজুলেশন করেই সেটি করা হয়েছে।

 

শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, [email protected] ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।