তানোরে অবৈধ মটরের বিদ্যুৎসংযোগ বিচ্ছিন্ন নিয়ে ঘটছে অপ্রিতিকর ঘটনা

তানোর প্রতিনিধি:

রাজশাহীর তানোরের মুন্ডুমালা পৌরসভার প্রকাশনগর, টকটকিয়া ও পরানপুর মহল্লায় অবৈধ মটরের সেচ বাণিজ্যের অভিযোগ উঠেছে। এসব অবৈধ মটরে পল্লী বিদ্যুতের সংযোগ নিয়ে এলাকায় প্রতিনিয়ত মারধরের ঘটনা ঘটছে। এতে যেকোনো সময় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ বা বড় ধরণের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটার আশঙ্কা করছেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

আজ বুধবার পরানপুর মাঠে অবৈধ মটরে পল্লী বিদ্যুতের অবৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার ঘটনায় প্রকাশনগর বাজারে দু’পক্ষের মাঝে মারপিটের ঘটনা ঘটেছে। এঘটনায় প্রকাশনগর মহল্লার মৃত আবু বাক্কারের পুত্র কাওসার আলী রয়েল বাদি হয়ে একই গ্রামের মৃত আব্দুল আজিজের পুত্র রহুল আমিনকে আসামী করে তানোর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

জানা গেছে, উপজেলার মুন্ডুমালা পৌর এলাকার পরানপুর মাঠে রহুল আমিনের একটি অবৈধ মটর রয়েছে। এদিকে পরানপুর মহল্লার গুচ্ছ গ্রামের একটি বাড়ির আবাসিক সংযোগ থেকে রহুল আমিন তার মটরে অবৈধ সংযোগ নিয়ে সেচ বাণিজ্যে করছে।  সম্প্রতি  মহল্লাবাসীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে পল্লী বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ রহুলের  মটরের অবৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেন। তবে রাশেলের মটরের অবৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়নি। এঘটনায় রহুল সন্দেহ করে রয়েলকে অকথ্য ভাষায় গালাগালি ও প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে মারপিট করেন। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, গত ৭ ফেব্রুয়ারী বুধবার সকালে প্রকাশনগর বাজারে রহুল মদ্যপ অবস্থায় কাওসার আলী রয়েলকে বেধড়ক মারপিট করে। এ সময় উপস্থিতরা এসে রয়েলকে উদ্ধার করেন।

স্থানীয়রা জানান, পল্লী বিদ্যুতের একশ্রেণীর কর্মকর্তার মদদে অবৈধ মটর মালিকেরা আবাসিক সংযোগ থেকে সেচ বাণিজ্যে করছে। তাদের কারণে পাড়া-মহল্লায় প্রতিনিয়ত মারামারি হানাহানির ঘটনা ঘটেছে। মহল্লাবাসীর অভিযোগ,রাশেলের মটরের অবৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা না হলে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশঙ্কা রয়েছে।

এবিষয়ে অভিযুক্তকারী রুহুল আমিন বলেন, রয়েলের সঙ্গে তার কথা-কাটাকাটি হয়েছে মাত্র। এবিষয়ে জানতে চাইলে তানোর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুর রহিম বলেন, অভিযোগ পাওয়া গেছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।