রবিবার , ২৫ এপ্রিল ২০২১ | ৫ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. অপরাধ ও দুর্নীতি
  3. অর্থ ও বাণিজ্য
  4. আইন আদালত
  5. আন্তর্জাতিক
  6. কৃষি
  7. খেলা
  8. চাকরি
  9. ছবিঘর
  10. জাতীয়
  11. তথ্যপ্রযুক্তি
  12. দুর্ঘটনা
  13. ধর্ম
  14. নারী
  15. নির্বাচিত খবর

তরুণীকে বিয়ে করে আবারও আলোচনায় ভবানীগঞ্জ পৌর মেয়র আব্দুল মালেক

Paris
এপ্রিল ২৫, ২০২১ ৮:৪০ অপরাহ্ণ

বাগমারা প্রতিনিধি: তরুণী কে বিয়ের মাধ্যমে আবারও আলোচনায় এসেছেন রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার ভবানীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আব্দুল মালেক মন্ডল। তার এই বিয়ের খবর সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে মেয়রের একটি ফেসবুক আইডিতে সস্ত্রীক ছবিসহ জানান দিয়েছেন। পারিবারিক কলহের জেরে অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার শিকার হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি। সম্প্রতি সুস্থ্য হয়ে তৃতীয়বারের মতো বিয়ের আসরে বসেন।

নিজের বিয়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মেয়র মালেক। তিন লক্ষ টাকা দেনমোহরে ইসলামী শরীয়ত ও রাষ্ট্রীয় আইন অনুযায়ী গত শুক্রবার (২৩ এপ্রিল) সন্ধ্যায় বিয়েটি সুসম্পন্ন হয়েছে।

কনে নুপূর আক্তার বাগমারা উপজেলার গনিপুর ইউনিয়নের লাউপাড়া গ্রামের বাসিন্দা আব্দুল মোনাফের মেয়ে । এর আগেও তার একবার বিয়ে হয়েছিল বলে জানা গেছে। বিয়েতে মেয়রের কয়েক ভাই, কাউন্সিলর, আত্মীয় স্বজন ও স্থানীয় রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

মেয়রের তৃতীয় বিয়ে তার নির্বাচনী এলাকা ভবানীগঞ্জ পৌরসভা ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক আলোচনার জন্ম দিয়েছে।

জানা গেছে, সম্প্রতি ১৫ এপ্রিল পারিবারিক কলহের জের ধরে প্রথম স্ত্রী কহিনুর বেগম ও পুত্র কামরুলের হাতে প্রহৃত হন মেয়র আব্দুল মালেক। আহত অবস্থায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। সুস্থ হওয়ার পর প্রথম স্ত্রী কহিনুর বেগমকে ডিভোর্স দেন তিনি। কোহিনুর বেগম বর্তমানে তার বাবার বাড়িতে অবস্থান করছেন বলে জানা গেছে। এরই মধ্যে গত শুক্রবার সন্ধ্যায় নুপুর আক্তারকে নিজের তৃতীয় স্ত্রী হিসেবে গ্রহণ করেন মেয়র মালেক। নিজের ফেসবুক আইডিতে স্ট্যাটাসে তিনি বলেন, পুরাতন সব কিছু বাদ দিয়ে তৃতীয় বিয়ে সম্পন্ন করলাম। সবার কাছে দোয়া কামনা করছি। যেন আমি ও আমার নতুন জীবন সঙ্গী সুখে থাকতে পারি।

স/রি

সর্বশেষ - রাজশাহীর খবর