‘ঝি কে মেরে’ কোহলিকে শেখালেন ক্রুদ্ধ রোহিত!

সিল্কসিটিনিউজ ডেস্ক:

 

ভারতের ধারাভাষ্যকার আকাশ চোপড়াকে একহাত নিয়েছেন রোহিত শর্মা। আকাশকে শেখাতে গিয়ে তিনি কোহলির দলের দিকেও ইঙ্গিত করেছেন। রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের জার্সিতে রোহিত সাফল্য এনে দিতে পারবেন কিনা, তা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছিলেন আকাশ চোপড়া। গম্ভীরকে জবাব দিতে গিয়ে আকাশ চোপড়া বিতর্কিতভাবে রোহিতের নেতৃত্বের দক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে দেন। অথচ এই রোহিত আইপিএলের সবচেয়ে সফল অধিনায়ক!

এবারের আইপিএলেও পঞ্চমবারের মতো দাপটে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে রোহিত শর্মার মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। এরপর ফেসবুকে শেয়ার করা এক ভিডিওতে আকাশ চোপড়া বলেছিলেন, ‘রোহিত আইপিএলের সফলতম অধিনায়ক। তাই গম্ভীর বলেছেন, রোহিতকে জাতীয় দলে অধিনায়ক না করা হলে ভারতের ক্ষতি হবে। তবে আমার এক প্রশ্ন আছে। রোহিতকে যদি রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের অধিনায়ক বানানো হতো, তাহলে কি তিন চারবার কি চ্যাম্পিয়ন করতে পারত?’

এর জবাবে রোহিত রীতিমতো বিস্ফোরণ ঘটিয়ে বলেছেন, ‘অনেকেই বলছেন আমি অন্য দলের হয়ে সফল হতে পারতাম কিনা! কিন্তু আমরা কেন অন্যদের হয়ে খেলব? মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের অগ্রগতির নিজস্ব ধরণ আছে। সেই এগিয়ে চলার সঙ্গে ক্রিকেটার এবং অধিনায়ক হিসেবে আমার চলার মিল আছে। আমাদের দল কি রাতারাতি এত ভালো হয়ে গেল? কেউ কি ভেবেছে আমাদের দল এত সফল কেন?’

প্রতি বছর রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর দলে একাধিক পরিবর্তন হয়, সেদিকে ইঙ্গিত করে রোহিত বলেন, ‘আমাদের ফ্র্যাঞ্চাইজি হঠাৎ করে ছাঁটাইয়ে বিশ্বাস করে না। আর রোহিত শর্মাসহ এই দলের প্রত্যেক ক্রিকেটার ২০১১ সালের নিলামে সহজলভ্য ছিল। মুম্বাই শুধু আমাদের বাছাই করে দল হিসেবে বাড়তে দেওয়ার সুযোগ দিয়েছে। হ্যাঁ, আমাদের কায়রন পোলার্ড আছে, হার্দিক পান্ডিয়া, জসপ্রীত বুমরাহ আছে। কিন্তু  এটা দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনার ফল।’

 

সূত্র: কালেরকন্ঠ

শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, [email protected] ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।