বুধবার , ১০ জানুয়ারি ২০২৪ | ১লা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. অপরাধ ও দুর্নীতি
  3. অর্থ ও বাণিজ্য
  4. আইন আদালত
  5. আন্তর্জাতিক
  6. কৃষি
  7. খেলা
  8. চাকরি
  9. ছবিঘর
  10. জাতীয়
  11. তথ্যপ্রযুক্তি
  12. দুর্ঘটনা
  13. ধর্ম
  14. নারী
  15. নির্বাচিত খবর

জার্মানিতে এক বছরে আশ্রয় আবেদন বেড়েছে ৫১ শতাংশ

Paris
জানুয়ারি ১০, ২০২৪ ৮:২৪ অপরাহ্ণ

কিল্কসিটি নিউজ ডেস্ক :

২০২৩ সালে জার্মানিতে আশ্রয় আবেদন জমা পড়েছে ৩ লাখ ৫১ হাজার ৯১৫টি। এই সংখ্যা ২০২২ সালের তুলনায় অন্তত ৫১ শতাংশ বেশি। সম্প্রতি জার্মানির ফেডারেল অফিস ফর মাইগ্রেশন অ্যান্ড রিফিউজিস (বিএএমএফ) এ তথ্য জানিয়েছে।

২০১৬ সালের পর গত বছরই সবচেয়ে বেশি আশ্রয় আবেদন জমা পড়েছে ইউরোপীয় দেশটিতে। ওই বছর সেখানে আশ্রয় চেয়ে করা আবেদনের সংখ্যা ছিল ৭ লাখ ২২ হাজার ৩৭০টি।

জার্মান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ন্যান্সি ফেজার এক বিবৃতিতে বলেছেন, ২০২৩ সালের আশ্রয় আবেদনের এই পরিসংখ্যান জানান দিচ্ছে, অনিয়মিত অভিবাসন নিয়ন্ত্রণে আমাদের অবশ্যই ধারাবাহিক পদক্ষেপ নিতে হবে।

সাম্প্রতিক মাসগুলোতে জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শলৎসের নেতৃত্বাধীন জোট সরকার অনিয়মিত অভিবাসন ইস্যুতে কঠোর অবস্থান নিয়েছে। কারণ, জনমত জরিপে ডানপন্থি দলগুলোর তুলনায় পিছিয়ে যাচ্ছে ক্ষমতাসীনরা।

অনিয়মিত অভিবাসন বন্ধে কয়েক মাস ধরে সীমান্তে নিরাপত্তা জোরদার করেছে করেছে জার্মানি। আশ্রয় আবেদন প্রত্যাখ্যান হওয়া ব্যক্তিদের বিতাড়ন বা ডিপোর্ট প্রক্রিয়াকে ত্বরান্বিত করতে অংশীদার দেশগুলোর সঙ্গে চুক্তি করতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন জার্মান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

এই চুক্তির মধ্য দিয়ে যাদের আশ্রয় পাওয়ার সম্ভাবনা কম থাকবে, তাদের আবেদন ইউরোপীয় ইউনিয়নের বহিঃসীমান্তে যাচাই-বাছাই করা হবে।

বিএএমএফ জানিয়েছে, ২০২৩ সালে জার্মানিতে সবচেয়ে বেশি আশ্রয় আবেদন করেছেন সিরীয় নাগরিকরা। মধ্যপ্রাচ্যের দেশটির ১ লাখ ৪ হাজার ৬৫১ জন নাগরিক আশ্রয় চেয়ে আবেদন করেছেন।

আশ্রয় আবেদনকারীদের মধ্যে এর পরেই রয়েছে তুরস্কের নাম। দেশটির ৬২ হাজার ৬২৪ জন নাগরিক জার্মানিতে আশ্রয় চেয়েছেন।

দক্ষিণ এশিয়ার দেশ আফগানিস্তানের নাম রয়েছে তালিকার তৃতীয় স্থানে। ৫৩ হাজার ৫৮২ জন আফগান নাগরিক আশ্রয় চেয়েছেন জার্মানিতে।

এরপরে রয়েছে ইরাক (১২ হাজার ৩৬০ জন), ইরান (১০ হাজার ২০৬ জন), জর্জিয়া (৯ হাজার ৩৯৯ জন) এবং রাশিয়া (৯ হাজার ২০৮ জন)।

জার্মানিতে প্রথমবারের মতো অন্তত ২৩ হাজার শিশুর জন্য আশ্রয় চেয়ে আবেদন করা হয়েছে, যাদের বয়স এক বছর বা তার চেয়েও কম। এদের প্রত্যেকের জন্ম জার্মানিতে।

২০২২ সালের ফেব্রুয়ারিতে ইউক্রেনে রাশিয়ার আক্রমণের পর অন্তত ১০ লাখ ইউক্রেনীয় শরণার্থীকে আশ্রয় দিয়েছে জার্মানি। তাদের অবশ্য আশ্রয়ের জন্য কোনো আবেদন করতে হয়নি। ইউরোপীয় ইউনিয়নের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, ইউক্রেনীয় যুদ্ধ শরণার্থীদের তাৎক্ষণিক অস্থায়ী সুরক্ষা দেওয়া হয়েছে।

২০২২ সালে জার্মানিতে আশ্রয় চেয়ে আবেদন করেছিলেন বিভিন্ন দেশের ২ লাখ ১৭ হাজার ৭৭৪ জন মানুষ। সংখ্যাটি ছিল তার আগের বছরের তুলনায় ৪৭ শতাংশ বেশি।

সর্বশেষ - আন্তর্জাতিক