চারঘাটে ঢাকা ফেরত দুই গার্মেন্টস কর্মীর করোনা শনাক্ত, মোট ৪ 

নিউজ ডেস্ক
  • 67
    Shares

চারঘাট প্রতিনিধি :
রাজশাহীর চারঘাটে আবারো করোনা ভাইরাসের সংক্রমন শনাক্ত হলো ঢাকা ফেরত ২জন গার্মেন্টস কর্মী। এরা হলেন, উপজেলার শলুয়া ইউনিয়নের মালেকার মোড় এলাকার আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে রেজাউল করিম অন্যজন উপজেলার অনুপমপুর গ্রামের নজের আলীর ছেলে সুমন আলী।

বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ডা: আতিকুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এ নিয়ে উপজেলায় করোনা সংক্রমনে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দাড়ালো ৪ জনে। এদের মধ্যে একজন নারী অন্য তিনজন পুরুষ। তারা সকলেই ঢাকা ফেরত।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স্রের চিকিৎসক ডা: আতিকুল ইসলাম জানান, আক্রান্ত রেজাউল করিম গাজীপুরে এবং সুমন আলী সাভারে গার্মেন্টস কর্মী হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তারা দুজনে মে মাসের ১ তারিখে বাড়ীতে আসেন। এরপর তাদের শরীরে করোনা সংক্রমনের নমুনা দেখা দিলে ৩১ মে নমুনা সংগ্রহ করে তা রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ল্যাবে পাঠানো হয়। সেখান থেকে ৩ জন সন্ধ্যায় তাদের শরীরে করোনা সংক্রমন পজেটিভ রিপোর্ট আসে। তারা তাদের বাড়ীতে অবস্থান করে চিকিৎসা নিবেন।

ডা: আতিক আরো বলেন, এ নিয়ে চারঘাটে করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দাড়ালো ৪ জনে। এদের মধ্যে একজন নারী রয়েছেন। তবে আক্রান্ত নারী এখন অনেকটা সুস্থ্ রয়েছেন বলেও দাবি করেন ডা: আতিক।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দা সামিরা বলেন, আক্রান্ত ২জন ব্যাক্তির বাড়ী লকডাউন করা হবে। তবে তিনি ঢাকা ফেরত ব্যাক্তিদের ব্যাপারে তথ্য দিয়ে সহযোগীতা করার জন্য চারঘাট উপজেলার সর্বস্তরের জনগনকে বিশেষ ভাবে আহ্বান জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, চারঘাটকে সুরক্ষিত রাখতে তথ্য দিয়ে স্থানীয় প্রশাসনকে সহযোগীতা না করলে সংক্রমন ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে। যার প্রমান গত দুই দিনের ব্যবধানে চারঘাটে করোনা সংক্রমনে আক্রান্ত রোগী আজ চারজনে। এজন্য সামাহি দুরুত্ব বজায় রেখে সকল মানুষকে ঘরের মধ্যে থাকার অনুােধ জানিয়েছেন। সেই সঙ্গে জরুরী কাজে বাড়ীর বাইরে বের হলে অবশ্যই মুখে মাস্ক ব্যবহারের জন্য চারঘাটবাসীকে আহ্বান জানান।

স/অ

শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, [email protected] ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।