কানাডায় আটকে পড়া ১৯৫ বাংলাদেশি ফিরেছেন

নিউজ ডেস্ক

বৈশ্বিক মহামারী করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) কারণে কানাডায় আটকে পড়া ১৯৫ জন বাংলাদেশি ফিরেছেন। কাতার এয়ারওয়েজের একটি বিশেষ চার্টার্ড ফ্লাইটে শুক্রবার তারা বাংলাদেশে এসে পৌঁছান।

গণমাধ্যমকে বিষয়টি জানিয়েছেন হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের পরিচালক এএইচএম তৌহিদ উল আহসান।

এর আগে বুধবার রাতে (কানাডার সময়) টরন্টো থেকে ওই বিশেষ ফ্লাইটে দেশের উদ্দেশ্যে রওনা হন তারা। কাতার এয়ারওয়েজের চার্টার্ড ফ্লাইটটি দোহায় এক ঘণ্টা যাত্রাবিরতি শেষে শুক্রবার (বাংলাদেশ সময়) সকাল ৭টা ৪০ মিনিটে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বমানবন্দরে অবতরণ করে।

যাত্রীদের মধ্যে বেশিরভাগ কানাডার বিভিন্ন কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করা বাংলাদেশী শিক্ষার্থী, পর্যটক এবং ব্যবসায় ভিসায় কানাডায় যাওয়া বাংলাদেশি নাগরিক এবং কিছু প্রবাসী বাংলাদেশি রয়েছেন।

কানাডায় বাংলাদেশের হাইকমিশনের সঙ্গে সমন্বয় করে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় করোনাভাইরাস মহামারীর প্রেক্ষিতে বিশ্বব্যাপী লকডাউনের মধ্যে সেখানে আটকে থাকা বাংলাদেশি নাগরিকদের অনুরোধে চার্টার্ড বিমানের ব্যবস্থা করে। বাংলাদেশ ৩০ মে পর্যন্ত টানা ষষ্ঠবারের জন্য আন্তর্জাতিক ফ্লাইট পরিচালনার চলমান নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ বাড়িয়েছে।

সরকার এ পর্যন্ত ভারত, যুক্তরাজ্য, অস্ট্রেলিয়া, থাইল্যান্ড, সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া, জাপান এবং দক্ষিণ কোরিয়াসহ বিভিন্ন দেশ থেকে আটকে পড়া বাংলাদেশিদের ফিরিয়ে এনেছে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ভারত, জাপান, কানাডা, অস্ট্রেলিয়া, তুরস্ক, সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া, থাইল্যান্ড, দক্ষিণ কোরিয়া, ভুটান, মায়ানমার এবং বিভিন্ন ইউরোপীয় দেশগুলোও বাংলাদেশ থেকে তাদের নাগরিকদের ফেরাতে বিমানের স্থগিতাদেশের মধ্যে বেশ কয়েকটি বিশেষ চার্টার্ড ফ্লাইট পরিচালনা করে।

শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, [email protected] ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।