কলেজে ভর্তির জমানো টাকা করোনা তহবিলে দিল বাগাতিপাড়ায় আল আমীন

নিউজ ডেস্ক
  • 33
    Shares

বাগাতিপাড়া প্রতিনিধি:

দিনমুজুরের সন্তান হয়েও নাটোরের বাগাতিপাড়ায় কলেজে ভর্তির জন্য শিক্ষাবৃত্তি ও টিউশনির ১০ হাজার টাকা করোনা তহবিলে দিল আল আমীন নামের এক শিক্ষার্থী। করোনা ভাইরাসের কারনে সৃষ্ট দুর্যোগে অসহায় মানুষের সহায়তার জন্য সে ওই টাকা দান করেছে।

মঙ্গলবার বাগাতিপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) প্রিয়াংকা দেবীর হাতে ওই টাকা তুলে দেয় আল আমীন। সে উপজেলার চকতকিনগর গ্রামের মোজাম্মেল হকের ছেলে।

আল আমীন জানায়, সে এবারের এসএসসি পরীক্ষায় চকগোয়াশ বেগুনিয়া উচ্চ বিদ্যালয় থেকে বিজ্ঞান বিভাগ থেকে জিপিএ ৪ দশমিক ৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছে। এছাড়াও ধার্মিক আল আমীন মাত্র তিন দিনে পবিত্র কুরআন শরীফ খতম দিতে পারে।

সে জানায়, তার বাবা একজন দিনমুজুর। তাই বিভিন্ন শ্রেণীতে পাওয়া শিক্ষা উপবৃত্তির এবং টিউশনি করে জমিয়েছিল ১০ হাজার টাকা। ওই টাকা দিয়ে ভাল কলেজে ভর্তি এবং পরের শ্রেনীর পড়ালেখার খরচ চালাতে চেয়েছিল সে। কিন্তু করোনা ভাইরাসের কারনে সৃষ্ট দূর্যোগে অসহায় ও দুস্থ মানুষের সহায়তার জন্য সে ওই টাকা দান করেছে।

তার কথা, ‘এই টাকা দিয়ে তো কিছু মানুষ খেয়ে বাঁচবে’।

ইউএনও প্রিয়াংকা দেবী পাল বলেন, বর্তমানে অনেক মানুষ কর্মহীন। এ জন্য সরকারি সহায়তার পাশাপাশি ব্যক্তিগতভাবে সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়াতে করোনা তহবিল খোলা হয়েছে। দিনমুজুরের সন্তান হয়ে একজন শিক্ষার্থী তাঁর শিক্ষাবৃত্তি ও টিউশনির জমানো ১০ হাজার টাকা এই তহবিলে দিয়েছে। এটি অসহায় মানুষের প্রতি মহানুভবতার প্রকৃষ্ট উদাহরণ। আল আমীনের মতো এ দুর্যোগের সময় অসহায় মানুষের পাশে এসে দাঁড়াতে সমাজের বিত্তশালীদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

 

শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, [email protected] ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।