করোনা হলে মস্তিষ্কে ক্ষতির সম্ভাবনা কতটুকু?

নিউজ ডেস্ক
  • 20
    Shares

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীরা মস্তিষ্কের কর্মহীনতা,স্নায়ু জটিলতা ,স্ট্রোকের সমস্যায় ভুগতে পারে বলে বলছেন ইউনিভার্সিটি কলেজ লন্ডনের একদল গবেষক। ৪৩ জন করোনা রোগীর উপর জরিপ চালিয়ে এ তথ্য সম্পর্কে নিশ্চিত হয়েছেন তারা। পরে জার্নাল ব্রেইনে প্রকাশিত হয়েছে  একটি অনুচ্ছেদ।

ইউনিভার্সিটি কলেজ লন্ডনের গবেষকদের গবেষণায় কোভিড  আক্রান্ত ৪৩ জন রোগীর  অস্থায়ী মস্তিষ্কের কর্মহীনতা, স্ট্রোক, স্নায়ুর ক্ষতি বা মস্তিষ্কের অন্যান্য গুরুতর প্রভাবের  বর্ণনা দেওয়া হয়েছে।

বিজ্ঞানীরা এরই মধ্যে  করোনাভাইরাস-সম্পর্কিত মস্তিষ্কের সম্ভাব্য ক্ষতি সম্পর্কে সতর্ক করেছেন কারণ গুরুতর স্নায়বিক জটিলতা প্রদাহ, মনোরোগ এবং ভুলভাল বকার মত সমস্যা তৈরি করতে পারে। ইউনিভার্সিটি কলেজ লন্ডনের নিউরোলজী বিভাগের মাইকেল জ্যান্ডি বলছেন, মহামরীর প্রভাবে মস্তিষ্কের অনেক ক্ষতি হয়। এর আগেও ১৯২০ থেকে ১৯৩০ সালে লেথার্জির প্রাদুর্ভাবের সময় মস্তিষ্কের ক্ষতি হয়।

করোনা মূলত ফুসফুসের ক্ষতি বা শ্বাসকষ্ট তৈরি করলেও  স্নায়ুবিজ্ঞানী এবং বিশেষজ্ঞরা বলছেন, মস্তিষ্কে এর ক্ষতিকর প্রভাব রয়েছে। এ বিষয়ে কানাডার ওয়েস্টান ইউনিভার্সিটির অ্যাড্রিয়ান ওউইন বলছেন, এখন কয়েক লাখ মানুষ করোনা আক্রান্ত। এক বছরের মধ্যে মানুষ সুস্থ হলেও আক্রান্ত রোগীদের কাজ করার ঘাটতি এবং জ্ঞানের ঘাটতি তৈরি হবে।

,এরই মধ্যে মস্তিষ্কে প্রদাহজনিত নয় জন রোগীকে এনকেফালোমায়ালাইটিস নামক একটি বিরল অবস্থায় শনাক্ত করা হয়েছে যা সাধারণত শিশুদের মধ্যে দেখা যায়। গবেষক দলটি বলেছে যে তারা সাধারণত লন্ডন ক্লিনিকে মাসে একটি  এনকেফালোমায়ালাইটিসে আক্রান্ত রোগীকে চিকিৎসা করত কিন্তু এ সংখ্যা এখন সপ্তাহে একটিতে দাঁড়িয়েছে।

গবেষণার সহ-নেতৃত্বাধীন রস পেটারসন বলেছিলেন, এই রোগটি প্রায় কয়েক মাস ধরেই হয়েছে, আমরা এখনও কোভিড -১৯ দীর্ঘমেয়াদী ক্ষতির কারণ হতে পারে তা এখনও জানি না। চিকিৎসকদের সম্ভাব্য স্নায়বিক প্রভাব সম্পর্কে সচেতন হওয়া প্রয়োজন, কারণ প্রাথমিক রোগ নির্ণয়ের ফলে রোগীর ফলাফলের উন্নতি ঘটতে পারে।”

শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, [email protected] ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।