‘করোনা স্টিমুলাস চেক যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনীতিতে গতি আনছে’

  • 6
    Shares

করোনা স্টিমুলাস চেক বিতরণের সুফল হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনৈতিক কর্মকান্ডে সুবাতাস বইতে শুরু করেছে। অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি এবং কর্মসংস্থানের যে প্রত্যাশা ছিল তাতে গতি আসতে শুরু করেছে বলে মন্তব্য করেছেন ফেডারেল রিজার্ভ চেয়ার জেরমি পাওয়েল।

সিবিএস নিউজের ‘সিক্সটি মিনিট্স’-এর সাথে ১১ এপ্রিল সাক্ষাৎকার প্রদানের সময় তিনি আরও বলেন, ‘করোনার স্থবিরতায় আক্রান্ত আর্থিক কর্মকান্ড ক্রমান্বয়ে চাঙ্গা হচ্ছে। যে অবস্থায় পতিত হয়েছিল, তা থেকে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে। অর্থনীতিতে প্রাণচাঞ্চল্যে এসেছে টিকা প্রদানের কর্মসূচি ব্যাপক আকার ধারণ করায়। আর্থিক কর্মকান্ডে প্রকৃত অর্থেই গতি সঞ্চারক বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমেরিকা উদ্ধার কর্মসূচিতে বিপুল অংকের অর্থ বিলি করা হয়েছে এবং নামমাত্র সুদে অথবা কখনোই ফিরিয়ে নেওয়া হবে না-এমন অঙ্গিকারেও ঋণ বিতরণ করা হয়েছে। প্রশাসনের নীতি-নির্ধারণে এমন উদারতার প্রভাবও পড়েছে অর্থনীতি সেক্টরে। মার্কিন ব্যবসায়ীরাও স্বস্তিবোধ করছেন ক্রমান্বয়ে স্বাভাবিক অবস্থায় প্রত্যাবর্তন নিয়ে।’

উল্লেখ্য, প্রেসিডেন্ট বাইডেনের আন্তরিক আগ্রহে গতমাসে পাস হওয়া ‘আমেরিকা উদ্ধার’ বিল অনুযায়ী মাথাপিছু ১৪০০ ডলারের চেক পেয়েছেন প্রত্যেক মার্কিন (যাদের বার্ষিক আয় ৭৫ হাজার ডলারের কম)।

এছাড়াও বেকার ভাতায় যোগ হয়েছে সপ্তাহে ৩০০ ডলার করে। আগামী ৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত চলবে বেকার ভাতা প্রদানের এই কার্যক্রম। এরপরও অবকাঠামোগত উন্নয়ন-প্রকল্পে মোটা অংকের অর্থ ব্যয়ের পরিকল্পনা পেশ করেছেন প্রেসিডেন্ট বাইডেন। এই মহাপরিকল্পনায় রিপাবলিকানদের সহায়তা চেয়েছেন বাইডেন। তা নিয়ে হোয়াইট হাউজেও আলোচনা চলছে নীতি-নির্ধারকদের সাথে কংগ্রেসের উভয় দলের নেতৃবৃন্দের।

তবে যদি করোনা মহামারি নতুন রূপে গ্রাস করে তাহলে বর্তমানের এই প্রত্যাশা আশাতীত হবে না। এ জন্যে দরকার স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা এবং সকলের টিকা গ্রহণ করা।

অর্থনীতিবিদের মতে, এ সময়ের বড় ভীতি হচ্ছে আবারও করোনা জেঁকে বসতে পারে। এদিকে, রোববার পর্যন্ত মোট ১৮ কোটি ৬০ লাখ আমেরিকানকে টিকা প্রদান করা হয়েছেযার মধ্যে অর্ধেক দুই ডোজে সম্পন্ন করেছেন বলে সিডিসি জানায়।

শুক্রবার (২ এপ্রিল) ৪৬ লাখ আমেরিকানকে টিকা প্রদানের মধ্যদিয়ে রেকর্ড সৃষ্টি করা হয়েছে। এভাবেই দ্রততম সময়ে সকল আমেরিকানকে টিকা প্রদানের টার্গেটও পূরণ হবে বলে আশা করা হচ্ছে। ইতিমধ্যেই ফাইজারের টিকা শিশুদের জন্যেও কার্যকর বলে এফডিএ উল্লেখ করেছে।

 

সুত্রঃ বাংলাদেশ প্রতিদিন

শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, silkcitynews@gmail.com ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।