করোনা : রাজশাহী বিভাগে ২৪ঘন্টায় শনাক্তের চাইতে সুস্থ বেশি

নিউজ ডেস্ক
ছবিতে রাজশাহী বিভাগের আটটি জেলার মানচিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদক :
রাজশাহী বিভাগে গত ২৪ ঘন্টায় করোনাভাইরাসে নতুন করে আক্রান্ত রোগী শনাক্তের চাইতে সুস্থ হয়েছে বেশি। এই সময়ের মেধ্যে নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে ১৭৯জন আর সুস্থ হয়েছে ২১৯জন। এনিয়ে মোট সুস্থদের সংখ্যা এখন ১ হাজার ৫০০ জন এবং মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৫ হাজার ৬৭৯ জন। বিভাগে নতুন করে কোন রোগী মারা যায়নি।

আজ বুধবার (১ জুলাই) রাজশাহীর বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. গোপেন্দ্রনাথ আচার্য্য এই তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, বিভাগের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছে ৫৮২ জন। হিবেসে আক্রান্তদের চাইতে সুস্থদের সংখ্যা বেড়েছে।

গত ২৪ ঘন্টায় ৮টি জেলার মধ্যে রাজশাহী জলোয় সর্বোচ্চ ৬৯ জন শনাক্ত হয়েছে। এছাড়া বগুড়াতে ৬১জন, সিরাজগঞ্জে ৪০, নাটোরে ৭ এবং জয়পুরহাটে ২জন শনাক্ত হয়েছেন।


আরও পড়ুন : রাজশাহীতে নতুন যারা করোনায় আক্রান্ত হলেন


রাজশাহী বিভাগের ৫টি ল্যাবে করোনা আক্রান্তদের শনাক্তে নমুনা পরীক্ষা করা হচ্ছে। এর মধ্যে রাজশাহী জেলায় দুইটি, বগুড়া জেলায় দুইটি ও সিরাজগঞ্জে একটি। এই ৫টি ল্যাবে বিভাগের ৮টি জেলার সন্দেহভাজন করোনা আক্রান্তদের শনাক্তে নমুনা পরীক্ষা করা হচ্ছে। পাবনার ল্যাবটি চালুর পর্যায়ে রয়েছে।

জানা গেছে, বিভাগের সর্বোচ্চ আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে বগুড়া জেলায়। সেখানে আক্রান্তের সংখ্যা ২ হাজার ৯৭৯ জন। পরের অবস্থানে রয়েছে রাজশাহী জেলা। সেখানে শনাক্তের সংখ্যা ৬৭৯ জন। তৃতীয় অবস্থানে সিরাজগঞ্জে শনাক্ত হয়েছে ৪৭৯ জন।

এছাড়া নওগাঁ জেলায় ৪৫২, চাঁপাইনবাবগঞ্জে ১০১ জন, নাটোরে ১৭৪ জন, পাবনা ৪৪৭ জন এবং জয়পুরহাটে ৩৬৮ জন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে।

বিভাগে করোনা আক্রান্ত মোট ৮০ জন মারা গেছেন। মৃতদের মধ্যে, রাজশাহী জেলায় ২৪ ঘন্টায় ১ জনসহ মোট ৮জন, বগুড়ায় আরো ৪ জনসহ মোট ৫২, পাননায় মোট ৮, নওগাঁয় মোট ৬, সিরাজগঞ্জে ২৪ ঘন্টায় ২জনসহ ৫জন এবং নাটোরে মোট ১জন করোনা আক্রান্ত রোগী মারা গেছেন।

স/রা

শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, [email protected] ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।