করোনা নিয়ে সাংবাদিক আল মাসুমের কবিতা ১৩ ভাষায় অনুবাদ

নিউজ ডেস্ক
  • 13
    Shares

করোনায় বিপর্যস্ত ঘরবন্দি মানুষের বিধ্বস্ত মানসিক অবস্থার কথা ভাবনায় এনে লেখক আল-মাসুম পাঁচটি কবিতা লিখেছেন।

করোনার বিভিন্ন দিককে উপজীব্য করে এসব কবিতা লেখা হয়েছে।

কবিতাগুলো আবৃত্তি করেছেন এপার বাংলা ও ওপার বাংলার জনপ্রিয় বাচিক শিল্পীরা।
একটি কবিতা ইংরেজী ভাষায় অনুবাদ করেছেন গবেষক সাংবাদিক আফসান চৌধুরী।
ইংরেজী করার পরে কবিতাটি মোট ১৩ টি ভাষায় অনুবাদ করা হয়েছে, করা হয়েছে আবৃত্তি।

লেখক আল-মাসুম পেশায় একজন সাংবাদিক। তিনি তার বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা সাংবাদিক বন্ধুদের সঙ্গে যোগাযোগ করে তার কবিতাগুলো ছড়িয়ে দিয়েছেন সারা বিশ্বে।

করোনা নিয়ে কবিতা লেখা প্রসঙ্গে মাসুম যুগান্তরকে বলেন, বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন দেশে গিয়েছি, পৃথিবীর নানা ভাষাভাষীর মানুষের সঙ্গে পরিচিত হয়েছি। গড়ে উঠেছে এক সৌহার্দপূর্ণ সম্পর্ক। তাই যখন আমি সবাইকে বললাম যে করোনা ইস্যুতে সারা বিশ্ব যখন লড়ছে, তবে আমরা নই কেন? সবাই সাড়া দিয়ে যার যার ভাষায় অনুবাদ করে আবৃত্তি করে আমাকে পাঠালে। আমি যেমন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করেছি ঠিক তেমনি তারাও শেয়ার করেছেন।

সাংবাদিক আল-মাসুমের কবিতাগুলো একজন ইকুয়েডরের সিনিয়র সাংবাদিক মনিকা সিসিলিয়া, জাপানিজ নাগরিক ও জাপানের উন্নয়ন কর্মী মিহা সাতো, ম্যাক্সিকোর সাংবাদিক জোয়ান মায়োরগা, ফিলিপাইনসের সাংবাদিক হন সোফিয়া, ইউক্রেনের সাংবাদিক কেটি কট, মেসিডোনিয়ার সিনিয়র সাংবাদিক নাতাশা দোকভস্ক, জাম্বিয়ার উন্নয়ন কর্মী স্যামুয়েল চাদেমানা, শ্রীলঙ্কার তরুন উন্নয়ন কর্মী পিউশানি ইলিগানা, যুক্তরাজ্যের সাংবাদিক মিখাইল হেবিস,তুরস্কের নাগরিক আইশে সন্তরন ও রাশিয়ান নাগরিক ইয়াবেহেনিইয়া লিপস্কা আবৃত্তি করেছেন।

এছাড়া বাংলাদেশের বিখ্যাত অভিনেতা রাইসুল ইসলাম আসাদ, পশ্চিমবঙ্গের বিখ্যাত অভিনেত্রী শ্রীলা মূখার্জী আবৃত্তি করেছেন কবিতা। বাংলাদেশের হাসান আরিফ ওমোহাম্মদ আহকাম উল্লাহ ও আবৃত্তি করেছেন মাসুমের কবিতা।

শুনুন সাংবাদিক আল-মাসুমের করোনা নিয়ে কবিতা –

শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, [email protected] ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।