করোনার তথ্য গোপন করে রামেক হাসপাতালে ভর্তি: মৃত্যুর পর চিকিৎসকদের মাঝে আতঙ্ক

নিউজ ডেস্ক
  • 273
    Shares
নিজস্ব প্রতিবেদক:
রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের ১৬ নাম্বার ওয়ার্ডে মৃত রবিউল ইসলাম (৪৫) করোনায় আক্রান্ত থাকার পরও স্বজনরা তার রোগের তথ্য গোপন করে হাসপাতালে ভর্তি করে। এতে করে ওয়ার্ডটির দায়িত্বে থাকা চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীরা স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে পড়েছেন। এমনকি এ নিয়ে ওই ওয়ার্ডের চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের মাঝে দেখা দিয়েছে চরম আতঙ্ক।
বিষয়টি জানার পর নিরাপত্তার স্বার্থে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ওয়ার্ডটির দায়িত্বে থাকা ২জন চিকিৎসক, ৩জন নার্স ও ১জন ওয়ার্ডবয়কে কোয়ারেন্টাইনে পাঠিয়েছে। রামেক হাসপাতালে উপপরিচালক ডা. সাইফুল ফেরদৌস বিষয়টি নিশ্চত করেন।
মৃত রবিউল ইসলামের বাড়ি চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদরে। তিনি পেশায় একজন ফল ব্যবসায়ী। ব্যবসায়িক কাজে তিনি বিভিন্ন সময় নিজ এলাকার বাইরে চলাফেরা করেছেন।
ডা. সাইফুল ফেরদৌস জানান, রবিউল ইসলামের বাড়ি চাঁপাইনবাবগঞ্জ। স্বজনরা আজ (বুধবার) তাকে হাসপাতারে নিয়ে আসে। রোগী আগেই মারা যায়। প্রথমে রোগীর স্বজনরা স্বীকার করে না যে রবিউল করোনা পজিটিভ ছিলো। পরে জিজ্ঞাসাবাদে তারা জানায় রবিউলের নমুনা ঢাকার ল্যাবে করোনা পজিটিভ ফল আসে।
হাসপাতালটির উপপরিচালক দু:খপ্রকাশ করে জানান, এই মুহুর্তে রোগীরা তাদের রোগ লুকালে চিকিৎসক ও স্বাস্থ্য কর্মীদের জন্য বিপদ। সেই সাথে হাসপাতালে আসা অন্যান্য রোগী ও তাদের স্বজনদের জন্যও ঝুঁকিপূর্ণ।
এদিকে রবিউলের লাশটি কোয়ান্টাম কর্তৃপক্ষকে ধোয়ানো ও জানাজার ব্যবস্থা করেছে। এর পর স্বজনদের সাথে লাশটি চাঁপাইনবাবগঞ্জে পাঠান হবে দাফনের জন্য।
স/আর
শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, [email protected] ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।