ওজন কমাতে লিচু

চলছে মধুমাস। আম, জামের পাশাপাশি লিচুর বাজারও রমরমা। লিচু খেতে যেমন সুস্বাদু তেমনি এর পুষ্টিগুণও রয়েছে। ভিটামিন সি ও অ্যাসকরবিক অ্যাসিডে ভরপুর এই ফল আমাদের শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে ৷ এছাড়া ক্যানসার প্রতিরোধে লিচুর ভূমিকা রয়েছে। এছাড়াও লিচুর আরো অনেক উপকারিতা রয়েছে, চলুন জেনে নেওয়া যাক।

১. ফাইবারসমৃদ্ধ লিচু কোষ্ঠকাঠিন্য সমস্যার সমাধানে উপকারী ৷  পরিপাক প্রক্রিয়ায় সাহায্য করে লিচু।

২.  লিচু পূর্ণমাত্রায় অ্যান্টিভাইরাল ৷ এতে থাকা ‘লিচিট্যানিন এ টু’ উপাদান মানবদেহে ভাইরাসের বংশবিস্তার রোধ করতে সাহায্য করে ৷

৩.  প্রচুর পরিমাণে তামা থাকায় লিচু রক্ত সংবহনে কার্যকরী ৷ লোহার মতো তামাও মানুষের দেহে লোহিত রক্তকণা তৈরিতে সাহায্য করে ৷

৪.ফ্লুইডের ভরসাম্য ঠিক রেখে লিচু মানবদেহে উচ্চরক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে ৷ সেইসঙ্গে  পটাশিয়াম বেশি এবং সোডিয়াম কম থাকায় লিচু রক্তচাপ নিয়্ন্ত্রণে রাখার জন্য কার্যকরী।

৫. লিচুতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট  ত্বককে রাখে সতেজ ও টানটান ৷ ভিটামিন সি থাকায় ত্বকের বলিরেখা রোধ করে লিচু।

৬.লিচুতে পানির পরিমাণ অনেক ৷ অন্যদিকে ফ্যাট ও ক্যালরির মাত্রা নামমাত্র ৷ ফলে যারা ডায়েট করছেন, তাদদের জন্য লিচু আদর্শ ৷ সেক্ষেত্রে দৈনিক খাবারে ফলের তালিকায় লিচু রাখতে ভুলবেন না ৷

৭. ম্যাগনেসিয়াম, আয়রন, ফসফরাস, ম্যাঙ্গানিজ, কপারের মতো খনিজপদার্থ থাকায় লিচু পেশি ও হাড়কে সুগঠিত করার ক্ষেত্রে খুবই প্রয়োজনীয় ৷

এত গুণ থাকলেও একটা বিষয় মনে রাখতে হবে  লিচুতে প্রাকৃতিক চিনি রয়েছে। এজন্য বেশি পরিমাণে লিচু খাওয়ার আগে অবশ্যই পুষ্টিবিজ্ঞানীদের পরামর্শ নিয়ে তারপর খেতে হবে।

 

সূত্রঃ কালের কণ্ঠ

শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, silkcitynews@gmail.com ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।