এমপি আয়েন মনোনয়ন পাননি, মহাসড়কে সেজদা দিয়ে শুকরিয়া জানালেন ছাত্রলীগ নেতা

নিজস্ব প্রতিবেদক:

রাজশাহী মহাসড়কে সেজদারত অবস্থায় মোহনপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আহসান হাবিব রনি একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে (ফেসবুক) ভাইরাল হয়েছে। ছাত্রলীগ নেতার এমন সেজদা দোওয়ার ঘটনা ঘটেছে বুধবার (২৯ নভেম্বর) রাতে মোহনপুর থানার মোড়ে। রাজশাহী- আসনে সংসদ সদস্য আয়েন উদ্দিন আওয়ামী লীগের মনোনয়ন না পাওয়ায় আল্লাহ’র কাছে শুকরিয়া জানাতে তিনি মহাসড়কে সেজদা করেছেন বলে জানান। রনি রাজশাহী জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক পদেও ছিলেন। উপজেলার একটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে তিনি কর্মরত আছেন।

তিনি জানান, ২০১৪ সালের নির্বাচনের তিন মাস পরে সংসদ সদস্য আয়েন উদ্দিন পুলিশ দিয়ে আমাকে আটক করান। আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হয়- আমি উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে আগুন দিয়েছে। এমন ঘটনা কোনদিনই ঘটেনি।আমার জানা মতে, এখন পর্যন্ত ঘটেনি।মিথ্যা একটা অভিযোগ দিয়ে আমাকে আটকিয়ে রাখে থানায়।বিষয়টি জানাজানি হলে রাজশাহী জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি-সেক্রেটারি পুলিশের উচ্চ মহলে কথা বললে ওই রাতে আমাকে ছেড়ে দেয়।

রনি বলেন, সংসদ সদস্য আয়েনের দুঃশাসন থেকে মুক্তি পেয়ে সৃষ্টিকর্তার কাছে কৃতজ্ঞতা জানিয়ে সেজদা করেছি। একই সাথে কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে। এই আয়েনের হাত থেকে পবা-মোহনপুরের মানুষ মুক্তি পেয়েছে।এই আয়েন নির্বাচিত হওয়ার পরে যারা আওয়ামী লীগ করে বা আওয়ামী লীগ পরিবারের সদস্য তাদের কোণঠাসা করেছে।সবাইকে ভয় দেখানোর জন্য আমাকে পুলিশ দিয়ে আটক করায়।আমরা আওয়ামী লীগ করে বিগত ১০ বছর খুব কষ্টে ছিলাম। এখন সে কষ্ট থাকবে না।

প্রসঙ্গত, রাজশাহী-৩ (পবা-মোহনপুর) আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ।

স/আর