এটা আমাদের জন্য দারুণ সুযোগ : আফিফ

সদ্য নিয়োগপ্রাপ্ত কোচ টবি র‌্যাডফোর্ডের তত্ত্বাবধানে আজ থেকে মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে নিজেদের অনুশীলন শুরু করেছেন হাই পারফরম্যান্স (এইচপি) ইউনিটের ক্রিকেটাররা। ফিটনেস ট্রেনিং দিয়ে ক্যাম্পে থাকা এইচপি ইউনিটের ২৬ জন ক্রিকেটার অনুশীলন শুরু করেন। গত ৭ অক্টোবর থেকে ক্যাম্পটি শুরু হয়। বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপে এইচপির ১৫ জন ক্রিকেটার অংশ নেওয়ায় মাঝে ক্যাম্পে বিরতি ছিল।

এইচপি খেলোয়াড় আফিফ হোসেন বলেন, ‘বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপের আগে আমাদের এইচপি ক্যাম্পটি শুরু হয়েছিল। আমাদের মধ্যে যারা সুযোগ পায়নি এবং যারা পেয়েছিল, তারা এখানে আছে। আমরা আবার একত্রিত হয়েছি এবং এটি খুবই ভালো যে বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপে আমরা যে ভুলগুলি করেছি তা সংশোধন করার জন্য আমরা সুযোগ পাচ্ছি। আমরা আশা করি, এখান থেকে ভাল কিছু শিখতে পারব।’

এই বছর অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ জয়ী দল থেকে ১৩ জন ক্রিকেটার এইচপি ইউনিটে এসেছে। এছাড়াও বিভিন্ন বয়স ভিত্তিক দল ও জাতীয় ক্রিকেট দলের বেশ কিছু প্রতিভাবান ক্রিকেটার এই ক্যাম্পে রয়েছেন। এই বছর এইচপি স্কোয়াডে তিনজন লেগ স্পিনারকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। জাতীয় দলের জন্য ভাল মানের লেগ স্পিনার তৈরিতে ক্যাম্পে বেশি জোর দেয়া হচ্ছে। জাতীয় দলে খেলা আমিনুল ইসলাম বিপ্লবের সাথে এইচপি দলে সুযোগ পেয়েছেন মিনহাজুল আবেদীন আফ্রিদি ও রিশাদ হোসেন।

আফিফ বলেন, ‘এটি অবশ্যই ভালও ব্যাপার। এমন সময়ে যখন আমাদের কিছু করার নেই, তখন আমরা একজন ভালো কোচের অধীনে অনুশীলনের সুযোগ পেয়েছি। এটি আমাদের জন্য দারুন এক সুযোগ। এইচপি ক্যাম্পটি আসলে একটি দীর্ঘমেয়াদী শিবির। এটি ভুল সংশোধন করার জায়গা। এইচপিতে প্রশিক্ষণ বিপিএল, এনসিএল, প্রিমিয়ার লিগের জন্য আমাদের ভালোভাবে প্রস্তুত করতে সহায়তা করবে।’

 

সূত্রঃ কালের কণ্ঠ

শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, [email protected] ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।