এক মাসে ধর্ষণের শিকার ১০৭ নারী-শিশু

  • 8
    Shares

করোনাকালেও গত জুলাই মাসে দেশে ধর্ষণের শিকার হয়েছে ১০৭ জন নারী ও শিশু। এ ছাড়া জুলাই মাসে নির্যাতনের শিকার হয়েছে ২৩৫ জন নারী ও কন্যাশিশু। মঙ্গলবার বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। ১৩টি দৈনিক পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদের ভিত্তিতে মহিলা পরিষদের লিগ্যাল এইড উপপরিষদ এই প্রতিবেদন প্রস্তুত করেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ধর্ষণের শিকার হয়েছে মোট ১০৭ জনের মধ্যে দলবদ্ধভাবে ধর্ষণের শিকার হয়েছে ১৪ জন, একক ধর্ষণের শিকার ৯০ জন এবং ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে ৩ জনকে। এ ছাড়া ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়েছে ৯ জনকে। শ্লীলতাহানির শিকার হয়েছে ৩ জন। অপহরণের ঘটনা ঘটেছে মোট ৫ জন। বিভিন্ন কারণে ৪৬ জন নারী ও কন্যাশিশুকে হত্যা করা হয়েছে।

যৌতুকের কারণে নির্যাতনের শিকার হয়েছে ১৫ জন। তার মধ্যে যৌতুকের কারণে হত্যা করা হয়েছে ৭ জনকে। গৃহপরিচারিকা নির্যাতনের শিকার হয়েছে ৬ জন। শারীরিক নির্যাতনের শিকার হয়েছে ৪ জন। যৌতুকের কারণে নির্যাতন করা হয়েছে ৬ জন। শারীরিক নির্যাতনের শিকার হয়েছে ৪ জন। বিভিন্ন নির্যাতনের কারণে ১০ জন আত্মহত্যা করতে বাধ্য হয়েছে ও আত্মহত্যার প্ররোচণার শিকার হয়েছে ২ জন। ১৮ জনের রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। বাল্যবিবাহের শিকার হয়েছে ৫ জন ও সাইবার ক্রাইমের শিকার হয়েছে ৫ জন।

 

সুত্রঃ কালের কণ্ঠ

শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, silkcitynews@gmail.com ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।