‘ঈশ্বর বাচাঁলে কেউ মারতে পারে না’

সবাই ব্যস্ত। কেউ আগুন ধরাচ্ছে। কেউ আগুন জ্বালানোর খঁড় কুটো আনছে। কেউ আবার গাভির সদ্য প্রসবকৃত বাছুরটিকে আগুনে স্যাঁকা দিচ্ছে। কনকনে শীতের মধ্যে কেউ কেউ আগুন পোহাচ্ছে আর দাড়িয়ে থেকে এসব দৃশ্য উপভোগ করছে। পুরো  বাড়ির সবাই ব্যস্ত বাছুরটিকে নিয়ে।

এ গল্পের রহস্য হলো, জানা গেছে  বরগুনার বেতাগী পৌরসভার ৩ নং ওয়ার্ডের পুলিন বিহারী ঢালী বাড়িতে গত রাতে একটি গাভি বাচ্চা প্রসব করে। এরপর ওই বাচ্চাটি গোয়াল ঘরের কাছে ডোবার পানিতে পড়ে যায়। ৬ ঘন্টারও বেশি সময় পানিতে ছিল। বাড়ির লোকজন সকালে অনেক খোজাঁখোজির পর পানি থেকে উঠিয়ে আনে। প্রথমে তারা মনে করেছিলো বাছুরটি মারা গেছে। এরপর বাড়ির লোকজন আগুনে স্যাঁকা দেওয়ার পর জীবিত রয়েছে তা বুঝতে পারে।

এসময় ওই গাভির মালিক পুলিন বিহারী ঢালী বলেন, ‘রাখে ঈশ্বর, মারে কে? ঈশ্বর বাচাঁলে কেউ মারতে পারে না। ৬ ঘন্টা পানির মধ্যে ডুবে থাকার পরেও এ বাছুরটির বেঁচে থাকা এটা তারই প্রমাণ।’

 

সূত্রঃ কালের কণ্ঠ

শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, silkcitynews@gmail.com ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।